আপডেট : ২৩ এপ্রিল, ২০১৬ ২২:৫৫

পৃথিবী বিখ্যাত কিছু বিপদজনক সেতু!

অনলাইন ডেস্ক
পৃথিবী বিখ্যাত কিছু বিপদজনক সেতু!
পৃথিবী সৃষ্টির শুরু থেকে আজ পর্যন্ত মানুষের প্রয়োজনে সব অসম্ভবকে সম্ভব করার চেষ্টা চলছে। বিজ্ঞানের আশীর্বাদে অনেকক্ষেত্রে মানুষ সফলও হয়েছে। মানুষ তার বুদ্ধিদীপ্ত চিন্তায় সব কিছুকে নিজেদের অনুকুলে নিয়ে নেয় । পৃথিবীর চারভাগের তিন ভাগ জুড়ে রয়েছে পানি । পানিকে উপেক্ষা করেই আমরা তার উপরে ভাসি কিংবা সেতু নির্মাণ করে পানির প্রতিকুলতা নিজেদের বসে আনি ।
পৃথিবীর অনেক দেশে আছে কিছু মনোমুগ্ধকর সেতু। আবার এমন কিছু সেতু আছে যেগুলো দেখলে ভীতু মানষের আত্মা চিন করে উঠবে। আজ আপনাদের এমন কিছু সেতুর সন্ধান জানাতে চাই যেসব সেতু কখনোই আপনার কাছে আরামপ্রদ কিংবা পারাপারের ক্ষেত্রে সহজ মনে হবে না । খুবই ভয়ানক এবং বিপদজনক অবস্থায় আপনাকে পার হতে হবে । যাদের হৃদযন্ত্র দুর্বল তাঁরা কখনো চিন্তাও করতে পারবে না এই সব সেতুতে পা রাখার । অবশ্য অ্যাডভেঞ্চার প্রিয় মানুষদের জন্যে খুব পছন্দের এই সব ভয়ানক ও বিপদজনক সেতু ।
 
ট্রিফ সাসপেনশন ব্রিজ– সুইজারল্যান্ড:
সুইজারল্যান্ডের গ্রাডমেন শহরের পর্বতমালায় এই সেতুটি অবস্থিত। নীচের হিমবাহ গলে যাওয়ায় পথচারীদের হাঁটার সুবিধার কারণে নির্মিত হয়েছিল সেতুটি। ট্রিফ সাসপেনশন সেতুটিকে বিশ্বের সবচাইতে বিপদজনক সেতু মনে করা হয়। এটি পৃথিবীর সবচেয়ে দীর্ঘ ও সুউচ্চ পায়ে হাঁটার ঝুলন্ত সেতু। ২০০৪ সালে এই সেতুটি নির্মাণ করা হয়। উচ্চতা ৩২৮ ফুট এবং দৈর্ঘ্য ৫৫৮ ফুট।
 
পুলাউ লনংগকীস সাসপেন্ড সেতু– মালয়েশিয়া:
পুলাউ লনংগকীস সাসপেন্ড সেতু সেতুটি পৃথিবীর অন্যতম ভয়ংকর সেতু। পুলাউ ল্যাংকাউই দ্বীপের গুনুং ম্যাট সিঙ্কেঙ্ক পাহাড়ের উপরের ১২৫ মিটার লম্বা ঝুলন্ত সেতুটিকে এমনভাবেই বানিয়েছেন স্থপতি মায়ুর কানাইয়া। মানুষকে একই সঙ্গে বন্যজীবনের সৌন্দর্য আর উন্মত্ততার কথা স্মরণ করিয়ে দেওয়ার জন্যই সেতুটি নির্মান করা হয়েছে।
 
ওল্ড ব্রিজ অফ কোনিটসা- গ্রীস:
ওল্ড ব্রিজ অফ কোনিটসা সেতুটি ১৮৭০ সালে নির্মান করা হয়। শত বছরের পুরনো এই ব্রিজ অউস নদীর উপরে অবস্থিত। এই ব্রিজের নিচে নাকি একটি ঘণ্টা ঝুলানো আছে। কথিত আছে, যখন বাতাসে এই ঘণ্টাটি বাজে তখন এর উপর দিয়ে যাওয়া বিপদজনক।
 
ক্যাপিলানো সাসপেনশন ব্রিজ- কলম্বিয়া:
কানাডার ক্যাপিলানো নদীর উপর নির্মিত সেতুটির দৈর্ঘ্য ১৪০ মিটার। নদী থেকে ২৩০ ফুট উপরে এর অবস্থান। সেতুর উপর থেকে নিচের দিকে তাকালে ভয় পাবেন যে কেউ। কটমেল ফুটব্রিজ শ্রীলঙ্কার কটমেল নদীর উপর নির্মিত এই সেতুটি। সেতুটি দেখলেই বুক কেঁপে উঠবে। কাঠের পাটাতনের বিভিন্ন অংশ ভেঙে গেছে, আর সেতুটা বেশ নড়বড়েও।
 
লিভিং ব্রিজ– ইন্ডিয়া:
ভারতের মেঘালয় রাজ্যের চেরাপুঞ্জি গ্রামের অবস্থিত এই সেতু। গ্রামের যুদ্ধজাতি খাসিস অনেকদিন আগে গাছের শিকড় দিয়ে এ ধরনের সেতু নির্মাণের কৌশল আবিষ্কার করে। তারা গাছের শিকড়কে এমনভাবে বাড়তে দেয়, যাতে করে তা নির্দিষ্ট দিকে বাঁকতে গিয়ে সেতুর নির্মাণ করে। স্থানীয়দের মতে সেতুগুলোর কোনো কোনোটি লম্বায় ৩০ মাইল এবং একবারে তাতে ৫০ জন মানুষের ভার সহ্য করার ক্ষমতা রয়েছে। তবে এটি পার হতে আপনাকে যথেষ্ট বেগ পেতে হতে পারে।
উপরে