আপডেট : ১৪ এপ্রিল, ২০১৬ ১১:১১

বাংলা নববর্ষে সন্ত্রাসের মতো জঞ্জাল দূর করার প্রত্যয়

বিডিটাইমস ডেস্ক
বাংলা নববর্ষে সন্ত্রাসের মতো জঞ্জাল দূর করার প্রত্যয়

জঙ্গিবাদ, সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদ, সন্ত্রাসের মতো জঞ্জাল দূর করার প্রত্যয় নিয়ে বাংলা নববর্ষের প্রথম দিন পয়লা বৈশাখে রাজধানী ঢাকায় বর্ণাঢ্য র‍্যালি করেছে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। র‍্যালি শুরুর আগে দলটির নেতারা সাম্প্রদায়িক বিষ বাষ্পের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ারও আহ্বান জানান। 

বৃহস্পতিবার পুরোনো ঢাকার বাহদুর শাহ পার্কে র‍্যালি পূর্ব ওই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের কমিটির নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে উদ্দেশ করে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, সব জঞ্জাল দূর করে প্রধানমন্ত্রীর ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ গড়তে আপনারা বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখবেন। আপনারা নব উদ্যমে এগিয়ে যাবেন। আমরা বিশ্বাস করি, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে, সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে, জামায়াত-শিবির যারা এক সময় নববর্ষকে পালন করতে চাইতো না; নববর্ষকে হিন্দুয়ানি সংস্কৃতি বলে অপবাদ দিত। এই সর্বজনীন উৎসবকে যারা স্বীকার করতে চাইতো না; সেই ব্যক্তি, গোষ্ঠী ও অপশক্তির বিরুদ্ধে অপসংস্কৃতি যারা চালায়, নতুন কমিটি বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখবে।

কামরুল ইসলাম বলেন, ‘দেশকে যারা ধ্বংস করতে চায়, আমাদের প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নকে যারা বানচাল করতে চায়। আমরা যখন দীপ্ত পদভারে এগিয়ে যাচ্ছি, বাংলাদেশ যেখানে প্রবৃদ্ধি, জিডিপি, মাথাপিছু বেড়েছে। তখন দেশকে যারা সন্ত্রাসের দিকে নিয়ে যেতে চায়। যারা দেশকে ধ্বংস করতে চায়। যারা আগুন সন্ত্রাস চালায়। যারা সাম্প্রদায়িক বিষ বাষ্প ছড়ায় তাদের বিরুদ্ধে আমরা বলিষ্ঠ কণ্ঠে সোচ্চার হই।

র‍্যালি পূর্ব সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এ কে এম রহমত উল্লাহ। বক্তব্য দেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি আবুল হাসনাত, সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, ঢাকা মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য সুজিত রায় নন্দী, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম প্রমুখ।

পরে বাহাদুর শাহ পার্ক থেকে র‍্যালি বের করে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। সেখানে হাতি, ঘোড়া নিয়ে নববর্ষকে স্বাগত জানিয়ে ঢোল-তবলা, বাঁশিসহ নানা ধরনের বাদ্যযন্ত্র বাজানো হয়। একই সঙ্গে নানা প্রকারের ব্যানার ফেস্টুন বহন করেন নেতা-কর্মীরা। হাজার হাজার আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের স্লোগান, গান-বাজনায় পুরানো ঢাকায় বৈশাখী রেশ ছড়িয়ে পড়ে। র‍্যালিটি বাহাদুর শাহ পার্ক-ইংলিশ রোড-জনসন রোড-মাজার রোড থেকে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে এসে শেষ হয়।

জেডএম

উপরে