ভিয়েতনামে আম রপ্তানি ও বাংলাদেশি শিক্ষার্থী পাঠানোর উজ্জ্বল সম্ভাবনা

ভিয়েতনামে বাংলাদেশের আম রপ্তানি, ভিয়েতনাম থেকে ড্রাগন ফল আমদানি ও দুই দেশের মধ্যে শিক্ষা সহযোগিতা বিনিময়ের মাধ্যমে এক দেশের শিক্ষার্থীরা যাতে ক্রেডিট ট্রান্সফারের মাধ্যমে অন্য দেশে পড়তে পারে সে বিষয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভিয়েতনামের রাষ্ট্রদূত ফাম ফিয়েত চিয়েনের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) ঢাকাস্থ ভিয়েতনাম অ্যাম্বাসিতে ভিয়েতনামের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে এক্সিম ব্যাংক এগ্রিকালচার বিশ্ববিদ্যালয় চাঁপাইনবাবগঞ্জের উপাচার্য প্রফেসর ডঃ এবিএম রাশেদুল হাসানের এক সৌজন্য সাক্ষাতে এসব বিষয়ে আলোচনা হয়।

ভিয়েতনামের নব নিযুক্ত রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে এই সৌজন্য সাক্ষাৎকারে উপস্থিত ছিলেন লিংকন ইউনিভার্সিটি কলেজের এশিয়াবিষয়ক ডাইরেক্টর এস এম জহিরুল ইসলাম সবুজ ও গণমাধ্যমকর্মীরা।

সৌজন্য সাক্ষাতে তাদের আলোচনার বিষয় ছিল দু’দেশের মধ্যে কিভাবে ট্যুরিজম শিল্পের বিকাশ ঘটানো যায় এবং বাংলাদেশ থেকে ভিয়েতনামে রপ্তানি বৃদ্ধি করা যায়। বিশেষ করে বাংলাদেশের আম ভিয়েতনামে রপ্তানি করার উপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

এছাড়াও ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া এবং থাইল্যান্ডের জনপ্রিয় ড্রাগন ফল বাংলাদেশে আমদানি এবং দুই দেশের শিক্ষা বিষয়ে বিভিন্ন সেমিনার বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ক্রেডিট ট্রান্সফার করার মাধ্যমে বাংলাদেশী ছাত্ররা ভিয়েতনামে এবং ভিয়েতনামের ছাত্ররা বাংলাদেশে যাতে পড়তে পারে সে সব বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

মন্তব্য