সাকিবের সঙ্গে ইতিহাসের জঘন্যতম প্রতারনা করলো ‘ভারত আর্মি’

ম্যাচ ফিক্সিং তথ্য গোপনের দায়ে এক বছরের জন্য সব ধরণের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ সময় কাটাচ্ছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। গত ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপে ব্যাটিং এবং বোলিং সব বিভাগেই দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছিলেন সাকিব। তিনি যে বর্তমান ক্রিকেট দুনিয়ার সেরা অলরাউন্ডার বিশ্বকাপে নজরকাড়া পারফরমেন্সের মাধ্যমে গোটা বিশ্বকে সেটার প্রমান দিয়েছিলেন।

সাকিব ২০১৯ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে ৮ ম্যাচ খেলে দুই সেঞ্চুরি এবং পাঁচটি হাফসেঞ্চুরিসহ মোট ৬০৬ রান করেছিলেন! ৭৪ ওভার বোলিং করে ৩৬.২৭ গড় এবং ৫.৩৯ ইকোনমিতে ১১ উইকেট শিকার এই বাঁহাতি স্পিনারের৷

এক বিশ্বকাপে অন্তত চারশ রান ও ১০ উইকেট নেবার কীর্তি এর আগে দেখাতে পারেননি বিশ্বের কোনো অলরাউন্ডার৷ সেটি আশির সেই বিখ্যাত চতুষ্টয় কিংবা পরবর্তী সময়ে জয়াসুরিয়া-ক্যালিস-ক্লুজনারদের কেউই না৷ সেখানে সাকিবের এক বিশ্বকাপে ৬০৬ রান ও ১১ উইকেট৷ বিশ্বকাপের রেকর্ডের পাতায় অক্ষয় কালিতেই লেখা হয়ে গেল সাকিবের এ কীর্তি৷

বিশ্বকাপের ঠিক পরেই আইসিসি সাকিবকে নিষিদ্ধ করে। আইসিসির অভিযোগ ছিল সাকিব ভারতীয় ম্যাচ ফিক্সার দীপক আগারওয়ালের কাছ থেকে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েও কাউকে কিছু না জানিয়ে ফিক্সিং বিষয় গোপন রেখেছিলেন। তাই আইসিসি সাকিবকে ১ বছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করে।

ঘটনা এখানেই শেষ না। আইসিসি সাকিবকে টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিং থেকেও তার নাম মুছে ফেলে। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের অসাধারণ পারফরম্যান্সের কারনে ৩২ বছরের সাকিব ভারত আর্মির পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক বর্ষসেরা পুরুষ খেলোয়াড় ক্যাটাগরিতে মনোনায়ন পেয়েছিলেন।

সাকিব ছাড়াও ইংল্যান্ডের বেন স্টোক, অস্ট্রেলিয়ার স্টিভ স্মিথ ও নিউজিল্যান্ডের কেন উইলিয়ামসন এই তিন জন সেরা পারফর্মার ভারত আর্মি অ্যাওয়ার্ডের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে স্থান পেয়েছিলেন।

ইন্ডিয়ার ক্রিকেট সমর্থক গোষ্টি ভারত আর্মি প্রতি বছরই ক্রিকেট সমর্থকদের ভোটে বছরের সেরা খেলোয়াড়কে এই সম্মানি অ্যাওয়ার্ড প্রদান করে থাকেন।

গতকাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারের পোল পোস্টের মাধ্যমে আজকে নির্বাচিত বিজয়ীর নাম প্রকাশ করা হয়। কিন্তু একি! সেখানে দেখা যায় অন্যদের থেকে সাকিব বিশাল ব্যবধানে ভোটে এগিয়ে থেকেও তার পরিবর্তে বেন স্টোকসকে বর্ষসেরা খেলোয়াড় বলে ঘোষনা করা হয়!

ভোটের ৬ দিনের শেষে সাকিব আল হাসান একাই ৮২ শতাংশ ভোট পেয়েছিলেন! দ্বিতীয় স্থানে থাকা বেন স্টোকস মাত্র ৮ শতাংশ ভোট, কেন উইলিয়ামসন ৬ শতাংশ এবং স্টিভ স্মিথ ৪ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। অথচ চূড়ান্ত ফলাফলে সাকিবের নাম নেই, বিজয়ী হয়েছেন ৮ শতাংশ ভোট পাওয়া বেন স্টোকস!

সত্যি সাকিবের সাথে এটা মারাত্মক অবিচার হয়ে গেলো। একজন বিশ্বমানের খেলোয়াড়কে এভাবে অপমান করা একদম ঠিক হয়নি।

ইন্ডিয়ার ক্রিকেট সমর্থক গোষ্টি ‘ভারত আর্মি’ সাকিবকে যখন পুরস্কৃত না করার সিদ্ধান্ত আগেই নিয়ে রেখেছিলেন তাহলে ভোটের পুর্বেই মনোনোনয়ন লিস্ট থেকে সাকিবের নাম প্রত্যাহার করা তাদের উচিৎ ছিলো। তাহলে সাকিবকে অন্তত এভাবে এতটা অপমানিত হতে হতো না।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

16 thoughts on “সাকিবের সঙ্গে ইতিহাসের জঘন্যতম প্রতারনা করলো ‘ভারত আর্মি’

  1. Commentআরে আমরা বাংলাদেশিরা সহ সারাবিশ্ব জানে নাম্বার ওয়ান খেলোয়াড় আমাদের সাকিব আল হাসান। আমরা সাকিবের জন্য গর্বিত

  2. আমির হোসেন

    - Edit

    Reply

    খারাপের রেংক হলে ভারতীয়রা ১, আর আমেরিকা ২ থাকত!

  3. আরে ওরাতো মালুয়ান। এরা মুসলমানদের এবং বাংলাদেশের লোকদের পারেনা

  4. Comment: We cannot expect any thing better from India. They have always treated us like enemies. They cheated in cricket games to win. Whatever, everybody knows that Sakib is the best Cricket all rounder in the world. We wish him best luck.

  5. Comment
    পৃথিবীব্যাপী জরিপ করে যদি বেয়াদবের এ্যাওয়ার্ড দেয়া হতো তাহলে ৮২% এর বেশি ভোটে রেন্ডিয়া চ্যাম্পিয়ন হতো

  6. Commentভারতীর আর্মি অপবিত্র এক গোষ্টি. ৷তাদের পরিচালনায় রয়েছে হিংসাপরায়ন, নোংরা মানষিকতার কিছু কর্তারা,যারই বহি:প্রকাশ হলো সাকিবকে হেয় করার অপচেষ্টা৷

মন্তব্য