পদত্যাগের বিষয়ে যা বললেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি

গত তিনমাস ধরেই দেশে পেঁয়াজের বাজারে আগুন জ্বলছে এবং পেঁয়াজের দামের লাগামহীন উর্ধ্বগতিতে মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এই পেঁয়াজ সংকট মোকাবেলায় যথাযথ কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেনি বলে অভিযোগ উঠেছে। চলমান পেঁয়াজ সংকটে বাণিজ্যমন্ত্রী তার যথাযথ দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়েছেন। বিভিন্ন মহল থেকে বাণিজ্যমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি উঠছে।

পদত্যাগের বিষয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বললেন, ‘পদত্যাগের করলে যদি পেঁয়াজের দাম কমে যায়, তবে তার মন্ত্রিত্ব ছাড়তে এক সেকেন্ডও লাগবে না।’

মঙ্গলবার (০৩ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর একটি হোটেলে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি রোধকল্পে ব্যবসায়ী সমাজের করণীয় শীর্ষক মতবিনিময় সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্যবিষয়ক উপকমিটি এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আজকেও যারা পেঁয়াজ আমদানি করছেন, তাদের আমদানিকৃত পেঁয়াজের দাম কেজিপ্রতি ৫০ টাকার বেশি হওয়ার কথা নয়। আগামী তিন বছরের মধ্যে পেঁয়াজ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ হওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে সরকার। এরপর আমদানি বন্ধ করে দেয়া হবে।

পদত্যাগ প্রসঙ্গে টিপু মুনশি বলেন, ‘বাণিজ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ চায়? এক সেকেন্ড লাগবে না আমার পদত্যাগ করতে। কোনো সমস্যা নেই আমার। তবে তাতে কি পেঁয়াজের দাম কমবে?’

‘তাতে যদি দেশের সবকিছু, পেঁয়াজের দাম ঠিক হয়ে যেত। একটু কষ্ট করতে হবে। আমরা এই বিপদটাকে সম্পদে পরিণত করবই করব। খুব বেশি দিন লাগবে না, আমাদের দেশ এই প্রডাকশনে সেলফ সাফিসিয়েন্ট হবেই, হবে।’

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

মন্তব্য