ঋণের দায়ে ডুবতে বসেছে পাকিস্তান, চরম সংকটে ইমরান

ঋণের দায়ে ডুবতে বসেছে পাকিস্তান। চরম আর্থিক সংকট মেটাতে ইতোমধ্যে বহির্বিশ্ব থেকে অর্থ ধার করার অঙ্কে পাকিস্তানের অতীতের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে ইমরান সরকার। সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান বলছে, কাশ্মীর ইস্যু থেকেও পাকিস্তানের জন্য এই মূহুর্তে বড় সংকট আর্থিক দায়।

পাকিস্তান সরকারের বর্তমান ঋণের পরিমান বেড়ে দাঁড়িয়েছে পাকিস্তানি মুদ্রায় ৭ দশমিক ৫০৯ বিলিয়ন। এটা আঁতকে ওঠার মতোই একটা সংখ্যা, যে কোন সরকারের জন্য নিঃসন্দেহে একটা বড়সড় চিন্তার বিষয়।

পরিসংখ্যান বলছে, পাকিস্তানে এ যাবৎকালের সবচেয়ে বেশি অর্থ ধারের রেকর্ড ইতোমধ্যে ইমরান সরকার করে ফেলেছে। সমনের দিনগুলো আরও অনিশ্চিত।

এদিকের পাকিস্তান স্টেট ব্যাংকের পক্ষ থেকে পাক প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে বেশকিছু পরিসংখ্যান এসে পৌঁছেছে। সেখানে দেখানো হয়েছে , ২০১৮ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত ইমরান সরকার ২ দশমিক ৮০৪ বিলিয়ন (পাকিস্তানি মুদ্রা) অর্থ বিদেশ থেকে ধার করেছে। এছাড়া ৪ দশমিক ৭০৫ বিলিয়ন পাকিস্তানি রুপি দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্র থেকে ঋণ নিয়ে দেশ পরিচালনা করেছেন ইমরান সরকার। যা পাকিস্তানের ইতিহাসে রেকর্ড।

গত বছরের আগস্টে ২৪ দশমিক ৭৩২ বিলিয়ন পাকিস্তানি রুপি অর্থের ঘাটতি থেকে চলতি বছরের শেষ দুই মাসে ৩২ দশমিক ২৪০ বিলিয়ন রুপি দেনা হয়ে গেছে ইমরান সরকার। সব মিলিয়ে ব্যাপক সংকটে পড়েছে ইমরান সরকার।

সূত্র-ওয়ান ইন্ডিয়া

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

মন্তব্য