আপডেট : ১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ২০:২৬

‘মেয়েদের জীবনের থেকেও যোনির দাম বেশি?’

তসলিমা নাসরিন
‘মেয়েদের জীবনের থেকেও যোনির দাম বেশি?’

মেয়েটিকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। শাস্তি চাওয়া হচ্ছে কেবলমাত্র ধর্ষকের। ধর্ষণ মুক্ত সমাজ গঠনের দাবিও করা হচ্ছে। কিন্তু, খুনির কী হবে? প্রশ্ন তুললেন বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

জম্মু-কাশ্মীরের কাথুয়া, উত্তর প্রদেশের উন্নাও, অসমের নওগাঁও সহ ভারতের বিভিন্ন প্রান্তের ধর্ষণের ঘটনা সামনে এসেছে সাম্প্রতিককালে। উন্নাও ছাড়া অপর দুই নির্যাতিতাকে ধর্ষণের পরে খুন করা হয়েছে। এর মধ্যে কাথুয়ার ঘটনা ঘিরে উত্তাল হয়ে রয়েছে সমগ্র দেশ।

রাজ্যের পঞ্চায়েত ভোটের তাজা ছবি এবং খবর তুলে আনতে আমরা আসছি ‘কোচবিহার-কাকদ্বীপ পঞ্চায়েত এক্সপ্রেস’ নিয়ে কলকাতায় ব্যবসায়ীর রহস্য মৃত্যুকে কেন্দ্রে করে চাঞ্চল্য। কাথুয়ার নাবালিকা ধর্ষিতা আসিফার সঙ্গে হয়ে যাওয়া চরম নির্যাতনের বিরুদ্ধে পথে নেমেছেন বহু মানুষ। সবারই একটাই দাবি কঠোরতম শাস্তি দেওয় হোক অভিযুক্তদের। অনেকেই ফাঁসির দাবি করেছেন সেই ধর্ষকদের। সব মিছিল থেকেই আওয়াজ উঠেছে বন্ধ হোক ধর্ষণ, গড়ে তোলা হোক সচেতনতা।

এই অবস্থায় শুধুমাত্র ধর্ষণ নিয়ে আওয়াজ তোলার বিষয়ে সরব হয়েছেন বাংলাদেশি লেখিকা তসলিমা নাসরিন। তাঁর কথায়, “একটি মেয়েকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। কিন্তু সবাই বলছে মেয়েটিকে ধর্ষণ করা হয়েছে। ধর্ষকের শাস্তি চাই। ধর্ষককে ফাঁসি দেওয়া হোক।” কিন্তু কেউ খুনির কথা বলছে না।

লজ্জার শ্রষ্ঠা তসলিমার দাবি, “ধর্ষকের সঙ্গে অভিযুক্ত ব্যক্তি বা ব্যক্তিরা খুনিও। তারা ধর্ষণের পরে খুনও করেছে। কিন্তু কেউ সেই খুনির শাস্তির কথা বলছে না।”

‘তাহলে কি খুনের থেকে ধর্ষণ বেশি খারাপ?’ প্রশ্ন তুলেছেন তসলিমা। একই সঙ্গে নারীবাদী তসলিমার আরও প্রশ্ন, “মেয়ে হওয়ার কারণেই ধর্ষণ বিষয়টিকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে? কারণ সেখানে যৌনতা লুকিয়ে রয়েছে।”

এখানেই থেমে থাকেননি দুঃসহবাসের লেখিকা তসলিমা নাসরিন। সমাজের কাছে এই প্রসঙ্গে তাঁর শেষ এবং সর্বাপেক্ষা গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নটি হল, “প্রতিবাদীরা কি মনে করেন যে মেয়েটির জীবনের থেকে যোনির দাম অনেক বেশি?”

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে