আপডেট : ১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১৪:১১

বিটিসিএলের ত্রুতির কারণে বন্ধ রয়েছে চেক নিষ্পত্তি ও অনলাইন অর্থ স্থানান্তর

অনলাইন ডেস্ক
বিটিসিএলের ত্রুতির কারণে বন্ধ রয়েছে  চেক নিষ্পত্তি ও অনলাইন অর্থ স্থানান্তর

বিটিসিএলের অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবলে সমস্যা হওয়ায় স্বয়ংক্রিয় চেক নিষ্পত্তি ও অনলাইন অর্থ স্থানান্তর বা ইলেকট্রিক ফান্ড ট্রান্সফার (ইএফটি) বন্ধ হয়ে গেছে । এতে করে সঠিক সময়ে চেক নিষ্পত্তি ও অনলাইনে অর্থ স্থানান্তর করতে না পারায় সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীরা ভোগান্তিতে পড়েছেন।

 

বাংলাদেশ ব্যাংকের দুটি সার্ভারের একটি মতিঝিলে ও অন্যটি মিরপুরের বাংলাদেশ ব্যাংক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে (বিবিটিএ)। এর মধ্যে গত মঙ্গলবার একটিতে সংযোগে বিপত্তি ঘটে। এরপর থেকেই চেক নিষ্পত্তি ও অনলাইন অর্থ স্থানান্তর হচ্ছে না। এর ফলে সোনালী ব্যাংকের চেক অন্য ব্যাংকে জমা দিলে এখনই তা নিষ্পত্তি হবে না। পাশাপাশি সোনালী ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে অনলাইনে তাৎক্ষণিক অর্থ স্থানান্তর করা যাচ্ছে না। এখন কেউ করলে পরে যখনই সিস্টেম চালু হবে তখন স্বয়ংক্রিয়ভাবে তা নিষ্পত্তি হয়ে যাবে। তবে চালু আছে রিয়েল টাইম গ্রস সেটেলমেন্ট বা আরটিজিএস। ফলে আন্তব্যাংক লেনদেন একেবারেই বন্ধ হয়ে যায়নি। বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, টেকনিক্যাল সমস্যার কারণে এটা হয়েছে। প্রথমে সিদ্ধান্ত হয় কোনো ব্যাংক খোলা রাখা হবে না। তখন হলিডে ঘোষণা করা হয়েছিল। ওই ঘোষণা অনুযায়ী সব বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। আবার যখন ব্যাংক খোলার ঘোষণা এলো তখন কিছু কিছু ক্ষেত্রে সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। তবে আমরা আশা করছি আজকের মধ্যে এ সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।


আন্ত ব্যাংক চেক লেনদেন ও ইএফটি—এই দুটিই ব্যাংকিং সেক্টরের আর্থিক খাতে লেনদেনের অন্যতম বড় দুই মাধ্যম। এগুলোর মাধ্যমে দৈনিক গড়ে ১৩ হাজার কোটি টাকা লেনদেন হয়ে থাকে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস বিভাগের এক কর্মকর্তা বলেন, “বিটিসিএলের লাইন কেটে যাওয়ার কারণে সমস্যার উদ্ভব হয়েছিল। এরপর সেটা গভীরে গিয়ে সার্ভারটি পুরোপুরি বসে যায়। নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে যে, লকডাউনে পাঁচ লাখ টাকার বেশি অংকের চেক ক্লিয়ারিংয়ের জন্য বেলা ১১টার মধ্যে পাঠাতে হবে। এসব চেক দুপুর ১২টার মধ্যে নিষ্পত্তি হবে। আর যেকোনো রেগুলার চেক বেলা সাড়ে ১১টার মধ্যে ক্লিয়ারিংয়ের জন্য পাঠাতে হবে। এসব চেক নিষ্পত্তি হবে দুপুর ১টার মধ্যে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত এই সময়ে চেক ক্লিয়ারিং করবে বিএসিএইচ। কিন্তু টেকনিক্যাল সমস্যার কারণে গত ১৩ এপ্রিল থেকে এ কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।

উপরে