আপডেট : ১৫ এপ্রিল, ২০২১ ২০:২২

চালের মূল্য বৃদ্ধি, কারণ জানালেন অর্থমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক
চালের  মূল্য বৃদ্ধি, কারণ জানালেন অর্থমন্ত্রী

করোনার কারণে কৃষকরা ঠিকমতো কাজ করতে না পারায় চলতি বছর চালের সরবরাহ কম হয়েছে, ফলে বাজারে চালের দাম বেশি বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। । রাজধানীর খুচরা বাজারে গত বছরের একই সময়ের তুলনায় প্রতি কেজি চাল ৩ দশমিক ৩৩ শতাংশ বেশি দরে বিক্রি হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে গণমাধ্যম প্রতিনিধিদের সঙ্গে প্রাক-বাজেট বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মন্ত্রী একথা বলেন।

ভারত, কম্বোডিয়া, থাইল্যান্ড সব দেশেই ঘাটতি আছে উল্লে­খ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাসের প্রভাবে সারাবিশ্বই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। এর কারণে কৃষিকাজ কৃষকরা করতে পারেনি। স্বাভাবিক কাজ যেমন ব্যাহত হয়েছে তেমনি কৃষিও ব্যাহত হয়েছে। এর কারণে সরবরাহ কমে গেছে, ফলে চালের দামটা বেশি।’

তিনি বলেন, ‘গত বছরও আমাদের অনেক বোরো নষ্ট হয়েছে, সেখানে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের জন্য একটি প্যাকেজ নেয়া হচ্ছে, সেভাবেই কাজটি করা হচ্ছে।ধান-চাল-গম এগুলো প্রকৃতির আচরণের ওপর নির্ভরশীল। আমরা দাবি করি আমরা স্বাবলম্বী। যে বছর প্রকৃতি স্বাভাবিক থাকে, সে বছর আমরা এই দাবি করতে পারি। প্রকৃতি বৈরি হয়ে উঠলে, প্রাকৃতিক কোনো দুর্যোগ আসলে সেটা আমরা মেইনটেন করতে পারি না। আমাদের এখানে যে পরিমাণ জমি আছে, দক্ষতা আছে, সেটা যদি পূর্ণাঙ্গ মাত্রায় ব্যবহার করতে পারি, তবেই আমরা সে বছর সাবলম্বী।

এক প্রশ্নের উত্তরে ভবিষ্যতে খাদ্য সঙ্কটের আশঙ্কার বিষয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, যেখানে হস্তক্ষেপ করা প্রয়োজন সরকার সেখানে হাতে দেবে, সহযোগিতা করবে। কৃষি আমাদের লাইফ লাইন। সব প্রকার কৃষিপণ্য উৎপাদনে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে। শিক্ষিত যারা কৃষিতে আসতে চায়, তাদেরকে প্রণোদনার ব্যবস্থা করা হবে। ম্যানুয়াল থেকে যারা আধুনিক কৃষিতে আসতে চায় তাদেরকে সহযোগিতা করব। কৃষিকে শক্তিশালী করার জন্য যা যা প্রয়োজন সরকার সব করবে।

উপরে