আপডেট : ৪ এপ্রিল, ২০১৬ ১৫:০৬

"EXAM"

মুভি রিভিও

সিনেমাতে আপনার কোন পরিচিত অভিনেতা অভিনেত্রী নেই,পরিচালক ও আপনার চেনা না। আইএমডিবি রেটিং অনেক কম। তারপরেও মুভিটি আপনি দেখবেন। কারন সিনেমাটি দেখে আপনার ভাল লাগবে অভিনয়,উপস্থাপনা এবং ডায়ালগ এর জন্য।

"৮০ মিনিট- ৮ জন মানুষ – ১ টা উত্তর – কোন প্রশ্ন নেই।"

এক্সাম সিনেমাটি মাত্র দেড় ঘন্টার এবং থ্রিলার জনরার এবং অবশ্যই সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার। কাহিনীটি একদমই সাধারন কিন্তু খুবই উত্তেজনাকর। একটা রহস্যময় এবং পাওয়ারফুল একটি প্রতিস্ঠানের নিয়োগ পরীক্ষা অনুস্ঠিত হবে। তো অনেক বাছাই করে ফাইনালের জন্য তারা ৮ জন ব্যাক্তিকে সিলেক্ট করেছে।এই ফাইনাল পর্যায়ে এসে ঐ ৮ জনকে একটি মাত্র প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। একজন পরিদর্শক এসে তাদের তিনটা রুল বলে দেয় যার একটিও যদি কেউ ভঙ্গ করে তবে সে বহিষ্কৃত হয়ে যাবে।

রুল তিনটিঃ

১। গার্ড বা পরিদর্শক কারো সাথে কথা বলার চেষ্টা করা যাবে না।

২। উত্তরপত্র নষ্ট করা যাবে না।

৩। এবং কোনভাবেই কেউ পরীক্ষার হল থেকে বের হতে পারবে না।

সময় ৮০ মিনিট এবং একটি প্রশ্নের উত্তর। এই বলে পরিদর্শক চলে যায়,থেকে যায় পিস্তলধারী কয়েকজন গার্ড এবং সেই আটজন ক্যান্ডিডেট। এবং গার্ড তাদের পরীক্ষার রুমে প্রবেশ করিয়ে দেয়। রুমটি একদম বদ্ধ কোন জানালা নেই খালি আছে প্রবেশ করার জন্য একটি মাত্র দরজা। আর রুমের ভেতর আটটি ডেস্ক ও চেয়ার রাখা। সেই ডেস্কের উপর তাদের ক্যান্ডিডেট নাম্বার আর একটি করে পেন্সিল রাখা।

এবং যথা সময়ে পরীক্ষা শুরু হয় কিন্তু অদ্ভুদভাবে আগ্রহী ক্যান্ডিডেটরা আবিষ্কার করে প্রশ্নপত্রে কোন প্রশ্ন নেই। এ রকম অবস্থাতে গল্প জটিল হয়ে জট পাকিয়ে আগাতে থাকে।

সিনেমার প্লটটা কি অদ্ভুদ এবং দুর্দান্ত তা নিশ্চই আপনারা বুঝতে পারছেন। নজরকাড়া মেকিং খুবই আকর্ষনীয় আর স্মার্ট উপস্থাপনার জন্য রাইটার ও ডিরেক্টর হিসেবে একটা বিশেষ ধন্যবাদ অবশ্যই স্টুয়ার্ট হ্যাজেলটাইনকে দিতে হবে। সিনেমাটি খুবই লো বাজেটের এবং কাস্ট ছিল একদম অন্যরকম কিন্তু সবদিক থেকে নতুন হলেও সিনেমাটি দুর্দান্ত হয়েছে। যেহেতু অভিনেতাদের আপনি চিনবেন না তাই তাদের পরিচয় তুলে ধরে তাদের কাজ সম্পর্কে আলোচনা করলাম না। সিনেমার কিছু প্লটহোলও আছে এবং শেষটা তেমন জমে নি, কিন্ত জায়গামত থ্রিল, সাসপেন্স প্রথম থেকে দর্শক ধরে রাখার মত সব উপকরন সিনেমাতে ছিল।

মুভিটি ২০০৯ সালের, ব্রিটিশ পরিচালক স্টুয়ার্ট হ্যাজেলটাইন এর ডেব্যু মুভি। মুক্তির পর এটি বেশ প্রশংসিত হয়েছিলো, এবং বাফটাতে আউটস্ট্যান্ডিং ডেবুট বাই আ ব্রিটিশ রাইটার,ডিরেক্টর,প্রোডিউসার ক্যাটাগরিতে নমিনেশান পান একাধারে মুভির লেখক,পরিচালক,প্রোডিউসার স্টুয়ার্ট হ্যাজেলটাইন। আমি সাধারনত কোন পরিচালক এর কাজ পছন্দ হলে তার অন্যান্য কাজগুলো দেখার চেস্টা করি,তাই এ পরিচালকের অন্য মুভিগুলো খুজতে গিয়ে অদ্ভুদভাবে আবিষ্কার করি তিনি ২০০৯ সালে এক্সাম মুভির পর আজ পর্যন্ত আর কোন কাজে হাত দেন নি।

 

বিডিটাইমস৩৬৫/এএ  

উপরে