আপডেট : ৩১ মে, ২০১৬ ২২:১৫

তিন লাইনের প্রেমের গল্পটি এখন বিশ্ব সেরা!

অনলাইন ডেস্ক
তিন লাইনের প্রেমের গল্পটি এখন বিশ্ব সেরা!

জলে ভিজলেই সর্দি হত মেয়েটার। তাই আজও বর্ষায় ওর কবরের পাশে ছাতা নিয়ে বসে থাকে বয়ফ্রেন্ড। না, ওর আর সর্দি হয় না। ব্যাস এতটুকুই প্রেমের গল্প। এটাই জিতে নিলো বিশ্ব সেরা ছোট গল্পের খেতাব।

এটিই এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় সবচেয়ে বেশি শেয়ার হওয়া ছোট প্রেমের গল্প। ছোট্ট এই চোখে জল এনে দেওয়া গল্পটাকে সেরার অ্যাখা দিল ''শেয়ার অ্যান্ড ভাইরাল'' নামের এক ম্যাগাজিন। গল্পটি লেখেন এলেনা দাভিভ নামের ২১ বছরের এক স্প্যানিশ মেয়ে। লেখিকা যখন এই গল্পটি লেখেন তখন ওঁর সদ্য ব্রেক আপ হয়েছে। বাইরে তখন খুব বৃষ্টি। হঠাত্‍ই দাভেজার মাথায় আসে এই গল্পের কথা।

ছলছলে চোখে দাভেজা ফেসবুকে এই গল্পটি তার নিজের টাইমলাইনে পোস্ট করেন। ব্যস, সেই শুরু। এরপর এই গল্পটি বিদ্যুতের গতিতে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে। গোলার্ধের বেড়াজাল টপকে ছোট্ট এই প্রেমের গল্পটা মানুষের মনে জায়গা করে নেয়। আর তাই শুরু হয় শেয়ারের পালা। ঠিক কত শেয়ার হয়েছে গল্পটা?তা ঠিক জানা যায়নি। তবে ধারণা কোটিরও বেশি বার শুধু ফেসবুকেই শেয়ার হয়েছে এই গল্পটা। 

উপরে