আপডেট : ৬ এপ্রিল, ২০১৬ ১৬:৪৩

যৌনতার উচ্ছলতায় পর্নস্টারের বিশ্বরেকর্ড!

বিডিটাইমস ডেস্ক
যৌনতার উচ্ছলতায় পর্নস্টারের বিশ্বরেকর্ড!

উচ্ছ্বল যৌনতা৷ উদ্দাম শরীরি খেলার হাতছানি৷ পর্দার ওপার থেকে পাঠানো সে ডাকে মোহগ্রস্তের মত হাজির হতেন দর্শক৷ একদিন, দু'দিন নয়, লন্ডনের মউলিন সিনেমাহলে টানা চারবছর ধরে চলেছে তাঁর এই সম্মোহনের খেলা৷ ছবির নাম ছিল ‘কাম প্লে উইথ মি'৷ আর সে খেলার নায়িকা ছিলেন মেরি মিলংটন৷ পর্ন ইন্ডাস্ট্রির অপ্রতিদ্বন্দী এই নায়িকাকে এবার বিরল সম্মান জানাতে চলেছে ইউকে৷ তাঁকে দেওয়া হচ্ছে ‘ব্লু প্লেক'৷ দেশের সম্মানীয় মানুষদেরই দেওয়া হয় এই ফলক৷

সত্তরের দশকে মিলিংটন ছিলেন একেবারে ছকভাঙা একজন মানুষ৷ যেমন তাঁর সাহসী পদক্ষেপ, তেমনই তাঁর সম্মোহনের ক্ষমতা৷ পুলিশ অফিসারের সঙ্গে টপলেস হয়ে ছবি তুলে হইচই ফেলে দিয়েছিলেন৷ তাঁর সফট পর্ন ছবি ‘কাম প্লে উইথ মি'-তে ছিল এমন জাদু, যা চুম্বকের মতো টেনে রেখেছিল দর্শককে৷ বিশ্বের তাবড় সিনেমাকে পিছনে ফেলে টানা চারবছর এই সিনেমা চলেছিল একটি হলে৷ অনেক ভাল সিনেমারও কপালে জোটেনি এই দর্শককৃপা৷ আর পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে তো এ বিশ্বরেকর্ড৷

শেষজীবনে মানসিক অবসাদে ভুগে ড্রাগের নেশায় নিজেকেই শেষ করে দেন মিলিংটন৷ তবে মরণোত্তর বিরল সম্মান পাচ্ছেন তিনি৷ যে সম্মান দেশের সম্মানীয় ব্যক্তিদের দেওয়া, সেই ‘ব্লু প্লেক' তুলে দেওয়া হচ্ছে তাঁর নামে৷ তাঁর জীবন নিয়ে একটি তথচিত্রও তৈরি হচ্ছে৷ তথ্যচিত্র টিভিতে সম্প্রচারিত করা হবে বলেও জানা গিয়েছে৷ এছাড়া ডিভিডিতেও প্রকাশিত হবে এই লাস্যময়ীর জীবনকথা৷

মউলিন সিনেমাহল কবে ভেঙে নাইটক্লাব হয়ে গিয়েছে. কিন্তু মিলিংটনের জাদু যেন এখনও গল্পের মতো ছড়িয়ে আছে৷ লিভারপুলের একটি নাইটক্লাবের নামও হয়েছে তাঁর নামেই৷ সত্তরের দিনকাল ফুরিয়ে গিয়েছে, তবু ব্রিটিশ সেক্স ইন্ডাস্ট্রিতে মাইলস্টোনের হয়েই যেন থেকে গেলেন মিলিংটন৷

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে