আপডেট : ৩১ জুলাই, ২০১৭ ১৪:৪৮

রোজ রাতে গোসল করার সুফল

অনলাইন ডেস্ক
রোজ রাতে গোসল করার সুফল

অনেকে একটি অভিযোগ প্রায়ই করে থাকেন। রাতে কিছুতেই ভালো ঘুম হয় না, কিংবা ঘুম আসতে দেরি হয়। নানা চেষ্টাতেও বিশেষ লাভ হয়নি। কেউ কেউ অ্যারোম্যাটিক অয়েল ব্যবহার করেছেন, কেউবা সরাসরি ওষুধের সাহায্য নিয়েছেন। তবে বিশেষ সুবিধা যে হয়েছে তা জোর গলায় বলা যায় না।

ঘুমের সমস্যার থেকে মুক্তি পাওয়ার কিন্তু একটি অতি সহজ সরল উপায় রয়েছে... শাওয়ার থেরাপি বা সহজ ভাষায় বলতে গেলে গোসল থেরাপি। তবে শুধুমাত্র ভালো ঘুমের ওষুধই নয়, এই থেরাপির রয়েছে আরও অনেক সুফল।

১. সারাদিনের ক্লান্তি দূর করতে যেমন গোসলের জুড়ি নেই, তেমনই ত্বকের জন্যও এই শাওয়ার থেরাপি ভালো। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে হালকা গরম পানিতে গোসল করলে ত্বকের উপর জমে থাকা ধুলো-ময়লা পরিষ্কার হয়ে যায়।

২. প্রতিরাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে বেশ খানিকটা সময় নিয়ে গোসল করতে পারলে তার প্রভাব পড়ে আপনার ব্লাড প্রেশারেও। শাওয়ার থেরাপি দুশ্চিন্তা কমানোর পাশাপাশি আপনার রক্তচাপও কমাতে সাহায্য করে।

৩. যারা সন্ধ্যায় কাজ থেকে বাসায় ফেরেন তাদের জন্য কিন্তু ঘুমোতে যাওয়ার আগে গোসল করা দরকার। শরীরে ঘাম জমে থাকলে নানারকম ফাঙ্গল ইনফেকশন হওয়ার আশংকা থেকে যায়। এছাড়াও কাজের পর হালকা গরম পানিতে গোসল বা স্টিম বাথ আপনার মাংসপেশি শান্তি দেবে। তাছাড়া মাংসপেশীর ব্যথাও কমায়।

৪. প্রতিরাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে গোসলের পানিতে ওডিকোলন বা এসেনশিয়াল অয়েলের কয়েক ফোঁটা দিয়ে গোসল করলে নিদ্রাহীনতা থেকেও মুক্তি পাবেন।

৫. চেষ্টা করবেন রাতের গোসলটা হালকা গরম পানিতে করতে। তবে কাজ থেকে ফেরার অন্তত ৩০ মিনিট পরে গোসল করবেন।

উপরে