আপডেট : ১২ মার্চ, ২০১৬ ২০:৫৬

ভূতেরা কেন তেঁতুল গাছে থাকতে পছন্দ করে?

বিডিটাইমস ডেস্ক
ভূতেরা কেন তেঁতুল গাছে থাকতে পছন্দ করে?

এই প্রশ্নের উত্তর জানতে একটু চোখ কান খোলা রাখলেই চলবে। কয়েকটা যুক্তি দিয়ে বুঝিয়ে দিচ্ছি…

ভূতেদের রয়েছে অবাধ যৌন স্বাধীনতা। প্রশ্ন করতে পারেন কেন? কারণ, যদি কেউ মরেই যায়, তাহলে আর তাকে স্বেচ্ছায় অনিচ্ছায় যৌনসুখ থেকে বঞ্চিত করবেন কোন অস্ত্রে? ব্যাটাকে ধরে আর তো মেরে ফেলতে পারবেন না। আর এ তো পৃথিবীর মানুষেরাও জানে যে, টক খেলে কামশক্তি বাড়ে। 

কম পয়সায় তেতুঁলের থেকে টক ফল আর একটা পাবেন? তাও আবার অতটা বড়, বেশ উঁচু? তাই তেতুঁল গাছে আয়েস করে থাকো। যখন ইচ্ছে হাত বাড়িয়ে রাজা-বাদশার আঙুর খাওয়ার মতো করে, তেতুঁলের থোকা খাও।
আর যত খুশি কামশক্তি বাড়াও। ওসব তেল-টেল লাগে মানুষের। ভূতেদের তেলে হয় না মশাই। ভূতেদের লাগে তেলের বদলে তেতুঁল! বোঝা গেল, কেন ভূতেরা এত গাছ থাকতে তেতুঁল গাছকেই এত পছন্দ করে?

এখনও বোঝেননি! বাজারে গিয়ে একটা কদবেল কিনতে যান। মেখে-টেখে কিনে আনতে তা প্রায় গোটা ২০ টাকা তো খরচ পড়বেই। সেখানে দুটো টাকা ফেললেই, এক মুঠো তেতুঁল। জলপাই বা বিলিতি আমড়ার দামও তেতুঁলের থেকে বেশিই। আর টকের মাত্রাতে তো বুনো ওল-ও তেতুঁলের ভয়ে পালায়। আর ভয় যদি চলেই যায়, যৌনতা তো আসবেই।

এই হল কারণ, ভূতেদের তেতুঁল গাছে থাকার। সে আপনি মানুন অথবা না মানুন। ভূতেরা কিন্তু এটাই মানে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে