আপডেট : ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৮:৩৯

উট ও ঘোড়া হত্যার পর এবার শত শত কোয়ালাকে বুলডোজারে পিষে ফেললো অস্ট্রেলিয়া!

আন্তর্জাতিক
উট ও ঘোড়া হত্যার পর এবার শত শত কোয়ালাকে বুলডোজারে পিষে ফেললো অস্ট্রেলিয়া!

উট ও ঘোড়া হত্যার পর এবার কোয়ালা হত্যায় মেতেছে অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া রাজ্যে শতাধিক কোয়েলাকে বুলডোজার দিয়ে চাপা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে একটি পরিবেশবাদী সংগঠন৷

সংগঠনটির ওই দাবির সপক্ষে ভিক্টোরিয়ায় অসংখ্য কোয়ালার মরদেহ পাওয়া গেছে৷

পরিবেশবাদী সংগঠনটি জানিয়েছে, দক্ষিণ-পশ্চিম ভিক্টোরিয়ার পোর্টল্যান্ডের কাছাকাছি স্থানে ব্লুগাম গাছের একটি প্রকল্পে পরিকল্পিতভাবে কোয়েলা নিধন করেছে মিডওয়ে নামের একটি কোম্পানি।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিতে শুক্রবার একটি স্থানীয় এক নারী একটি ভিডিও ফেসবুকে আপলোড করেন৷

ভিডিওতে কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, ‘মা কোয়ালাদের আর ছানাদের হত্যা করা হয়েছে৷ অস্ট্রেলিয়ার লজ্জিত হওয়া উচিত৷’

এ বিষয়ে বার্তা সংস্থা ডিপিএ-কে ফ্রেন্ডস অব দ্য আর্থ অস্ট্রেলিয়ার গবেষক অ্যান্থনি অ্যামিস বলেন, ‘আমরা ঘটনার সত্যতা পেয়েছি। স্থানীয়রা বুলডোজারে পিষ্ট কোয়ালাগুলোর সন্ধান পায়৷ ওই এলাকায় মৃত কোয়েলাগুলোর পঁচা গন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে৷ এটা নিশ্চিত একটি হত্যাকাণ্ড৷ যা কখনও মেনে নেবার নয়।’

তবে এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে মিডওয়ে কোম্পানির জড়িত নয় জানিয়ে অ্যামিস আরো বলেন, গত বছরের নভেম্বরে পর্যন্ত ব্লুগাম গাছের ওই প্রকল্প মিডওয়ে কোম্পানির তত্ত্বাবধানে ছিল৷ এরপর স্থানীয় এক ভূমি মালিকের কাছে সেটি হস্তান্তর করে তারা চলে যায়৷ সম্প্রতি সেখানে অন্য গাছ কাটতে গিয়ে কোয়ালাদের বুলডোজারে পিষ্ট করা হয়৷

এদিকে পরিবেশবাদিদের অভিযোগ আমলে নিয়ে বিষয়টি তদন্ত করছে ভিক্টোরিয়ার পরিবেশ অধিদফতর৷ অধিদফতরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, পরিকল্পিতভাবে কোয়ালাদের হত্যা করা হলে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পরিবেশ অধিদফতর এমন বক্তব্যের পর নিজেদের নির্দোষ দাবি করেছে মিডওয়ে। তারা জানায়, গত বছরেই জমি হস্তান্তর করে দিয়েছে মিডওয়ে। ওই সময়ে কোয়ালাদের কোনো ধরনের ক্ষতি হতে দেয়নি তারা৷ প্রাণীগুলোর বসবাসের মত যথেষ্ট গাছও তারা রেখেছিল৷

জানা গেছে, গত কয়েক দশক ধরে ভিক্টোরিয়াতে এক লাখ ৭০ হাজার হেক্টর জমিতে ব্লুগাম গাছের চাষ হয়৷ সেখানে অস্ট্রেলিয় এই প্রাণিটি বসবাস করে৷

সম্প্রতি দাবানলে অস্ট্রেলিয়াতে লক্ষাধিক কোয়ালা মারা গেছে। আগুনে পুড়ে গেছে অনেক প্রাণীর বসতি৷ দাবানলের সময় দেশটিতে ১০ হাজার উট মেরে আর্ন্তজাতিকভাবে নিন্দিত হয় অস্ট্রেলিয়া।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে