আপডেট : ১৬ জুন, ২০১৬ ০৯:৫১

রাশিয়ায় অ্যাথলেটদের মাদক পরীক্ষায় বাধা দেয়ার অভিযোগ

অনলাইন ডেস্ক
রাশিয়ায় অ্যাথলেটদের মাদক পরীক্ষায় বাধা দেয়ার অভিযোগ

বিশ্ব মাদকবিরোধী সংস্থা, ওয়াডা অভিযোগ করেছে, রাশিয়া তাদের অ্যাথলেটদের ওপর মাদক পরীক্ষায় বাঁধা প্রদান অব্যাহত রেখেছে।

ওয়াডা বলছে, গত নভেম্বর থেকে সংস্থাটির মাদক পরীক্ষকদের নিরাপত্তা সংস্থাগুলো থেকে নিয়মিত হুমকি প্রদান করা হচ্ছে। এমনকি পরীক্ষার নমুনায়ও ভেজাল মেশানো হচ্ছে।

ওয়াডার প্রতিবেদন এমন এক সময়ে আসলো যখন আর মাত্র দুদিন পরই  রুশ প্রতিযোগীরা আগামী অগাস্টে অনুষ্ঠিতব্য রিও অলিম্পিকসে অংশগ্রহণ করতে পারবে কিনা সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাতে যাচ্ছে বিশ্ব অ্যাথলেটিক্সের নিয়ন্ত্রক সংস্থা, আই এ এ এফ। গত নভেম্বরে রুশ অ্যাথলেটদের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়।

ওয়াডার এক প্রতিবেদনে ব্যাপকভাবে রুশ অ্যাথলেটদের মাদক পরীক্ষায় ব্যর্থ হবার বিষয়টি প্রকাশ করা হলে এই সিদ্ধান্ত নেয় আই এ এ এফ।

ওয়াডার নতুন প্রতিবেদনে রুশ অ্যাথলেটরা মাদক পরীক্ষা এড়ানোর জন্য যেসব কায়দাকানুন অনুসরণ করে তারও কিছু উদাহরণ তুলে ধরা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, কিছু রুশ অ্যাথলেট ইভেন্টে অংশ নেয়া থেকে বিরত থাকে এমনকি কর্মকর্তাদের ধোঁকা দেয়ার জন্য শুরুর তালিকা থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেয়।

রুশ সামরিক শহরগুলোতে প্রবেশের সময় মাদক পরীক্ষকদের ভয় দেখানো হয় এবং সশস্ত্র নিরাপত্তাকর্মীরা তাদের দেশ থেকে বের করে দেয়ার হুমকিও দিয়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। নভেম্বরে নিষেধাজ্ঞা দেয়ার ছয় মাস পর নতুন এই প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হলো।

নিষেধাজ্ঞা কার্যকরের পর রাশিয়ার কর্মকর্তারা দেশটির অ্যাথলেটিক্সে আমূল পরিবর্তনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কিন্তু প্রতিবেদনে দেখা যাচ্ছে রুশ অ্যাথলেটদের পরীক্ষায় ৫২ টি নমুনায় মাদক পাওয়া গেছে এবং ১১১ টি ক্ষেত্রে পরীক্ষার জন্য অ্যাথলেটদেরই খুঁজেই পাওয়া যায়নি।

রুশ ক্রীড়ামন্ত্রী বলেছেন, আই এ এ এফে দেশটির অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের সদস্যপদ যদি পুনরায় বহাল করা না হয় তবে তারা আইনি ব্যবস্থা নেবেন।

উপরে