আপডেট : ১৮ এপ্রিল, ২০১৬ ১৪:৫০

ভূমিকম্পে জাপানের কারখানাগুলো ক্ষতিগ্রস্ত ;উৎপাদন বন্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
ভূমিকম্পে জাপানের কারখানাগুলো ক্ষতিগ্রস্ত ;উৎপাদন বন্ধ

জাপানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের শহর কুমামুতে বড় ধরনের দুটি ভূমিকম্পের কারণে কারখানাগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় উৎপাদন বন্ধ ঘোষণা করেছে দেশটির কোম্পানিগুলো।  বিশ্বখ্যাত সনি, টয়োটা, হোন্ডাসহ বেশ কয়েকটি কোম্পানি তাদের কারখানার উৎপাদন বন্ধ ঘোষণা করেছে।বিবিসি

কুমামুতো শহর জাপানের শিল্প উৎপাদনের কেন্দ্রস্থল হিসাবে পরিচিত। কারখানাগুলোর উৎপাদন বন্ধ ঘোষণার কারণে পণ্য সরবরাহে সংকট দেখা দিতে পারে বলে আশংকা তৈরী হয়েছে।

দুই দফা ভূমিকম্পে ভবন ও অন্যান্য অবকাঠামো ধসে পড়ায় কমপক্ষে ৪১ জন নিহত এবং অনেকে আহত হয়েছেন।

টয়োটার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যন্ত্রাংশ সংযোজনে জাপানজুড়ে যেসব কারখানা রয়েছে তার প্রায় সব ক’টিরই উৎপাদন বন্ধ রাখা হবে। এক সপ্তাহ পর্যন্ত উৎপাদন বন্ধ থাকতে পারে বলে কোম্পানির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

বিশ্বের বৃহত্তম গাড়ি উৎপাদনকারী এ প্রতিষ্ঠানটি বলছে সরবরাহকারী কিছু প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে তারা যন্ত্রাংশ পাচ্ছেন না। কোম্পানির মূল যন্ত্রাংশ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান এইশিন সেইকিও এর মধ্যে রয়েছে।

জাপানের সংবাদপত্র নিক্কি’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কুমামুতে ভুমিকম্পের কারণে ইঞ্জিন এবং অন্যান্য যন্ত্রাংশ প্রস্ততকারি সহযোগী প্রতিষ্ঠানের উৎপাদন বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে এইশিন সেইকি। কোম্পানিটি তাদের উৎপাদন কারখানা অন্য জায়গায় সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করছে।

এদিকে কারখানা বন্ধ ঘোষণার কারণে টয়োটার ৫০ হাজার গাড়ি উৎপাদন কম হতে পারে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন।

অপরদিকে স্মার্টফোনের জন্য ইমেজ সেন্সর উৎপাদনকারী কারখানার উৎপাদন বন্ধ থাকবে বলে বলে জানিয়েছে সনি।

ভূমিকম্পের কারণে জাপানের ওই এলাকার রেঁস্তরা এবং খুচরা ব্যবসায়িরাও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। সুপারমার্কেট পরিচালনাকারী এয়ন তাদের ২৭তলা বিশিষ্ট স্টোর রবিবার বন্ধ করে দিয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এমএইচ

উপরে