আপডেট : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:১৫

৯ বছরের মেয়েকে দিয়ে জোর করে দেহব্যবসা করান মা!

অনলাইন ডেস্ক
৯ বছরের মেয়েকে দিয়ে জোর করে দেহব্যবসা করান মা!

৯ বছর বয়সী নিজের নাবালিকা মেয়েকে জোর করে মাদক খাইয়ে পুরুষদের লালসার বস্তুতে পরিণত করার অভিযোগ উঠেছে অস্ট্রেলিয়ার এক নারীর বিরুদ্ধে। এক বছরেরও বেশি সময় এই নির্যাতন সহ্য করে শেষ পর্যন্ত পালাতে সক্ষম হয় সেই নাবালিকা। এরপরই সামনে আসে অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড রাজ্যের গোল্ড কোস্ট শহরের এই ঘটনা।

 এক বালিকাকে যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠল তার মায়ের বিরুদ্ধে। পুলিশের কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে, যে এই নারী তার ৯ বছরের মেয়েকে বেঁধে, তাকে প্লে বয়ের পোশাক পরিয়ে তার বন্ধুদের দিয়ে বালিকাকে ধর্ষণ করার জন্য প্ররোচনা দিয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, এই ঘটনা দীর্ঘদিন ধরে চলে আসছে। ২০১৪ সালের মে মাস থেকে ২০১৫ সালের মে মাস পর্যন্ত মেয়েটিকে একই ভাবে নির্যাতন করা হয়েছে। বিভিন্ন বন্ধুকে দিয়ে তার মা এই কাজ করিয়েছে বলেই জানা যায়। মেয়েটির বয়ান অনুযায়ী, তার মা তাকে জোর করে মাদক সেবন করাতেন এবং যৌন সম্পর্ক স্থাপন করতে বাধ্য করতেন।

মেয়েটি আরও জানায়, যে একদিন ঘুম থেকে উঠে সে দেখে তাকে অদ্ভূত পোশাক পরানো হয়েছে এবং তারপর তাকে একজন ব্যক্তির সঙ্গে মুখমেহন করতে নির্দেশ দেওয়া হয়। মেয়েটি আরও একটি ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে জানায়, একদিন তাকে গ্যারাজে নিয়ে গিয়ে একাধিক পুরুষ যৌন হেনস্থা করেছে এবং সে প্রতিবাদ করতে চাইলেই তাদের মধ্যে একজন ব্যক্তি তাকে গুলি করে খুন করার হুমকিও দিয়েছে। ওই নাবালিকার আরও অভিযোগ, যে তার মাও তার সঙ্গে জোর করে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেন এমনকি ওই নারী আরও দুই পুরুষ কে নিয়ে ‘থ্রি-সাম’ও করেছেন এই নাবালিকার সামনে।

এই পুরো ঘটনাটি সামনে আসে যখন ওই নাবালিকা তার মনস্তত্ববিদের কাছে এই সব ঘটনা স্বীকার করে। আগামী বুধবার এই ঘটনার শুনানি সেইদিন অভিযুক্ত নারী জামিনের জন্য আবেদন করবেন বলে জানা গেছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল
উপরে