বাংলাদেশের পতাকার আদলে তৈরি হাফপ্যান্ট-বিকিনি বিক্রি করছে অ্যামাজন | BD Times365 বাংলাদেশের পতাকার আদলে তৈরি হাফপ্যান্ট-বিকিনি বিক্রি করছে অ্যামাজন | BdTimes365
logo
আপডেট : ২১ জুলাই, ২০১৯ ১৮:১৭
বাংলাদেশের পতাকার আদলে তৈরি হাফপ্যান্ট-বিকিনি বিক্রি করছে অ্যামাজন
অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশের পতাকার আদলে তৈরি হাফপ্যান্ট-বিকিনি বিক্রি করছে অ্যামাজন

বাংলাদেশের পতাকার আদলে তৈরি হাফপ্যান্ট, বিকিনি বিক্রি করছে বিশ্বজুড়ে সুপরিচিত ই-কমার্স জায়ান্ট অ্যামাজন। যুক্তরাষ্ট্রের এই ই-কমার্স সাইটটিতে প্রবেশ করে সার্চ অপশনে গিয়ে ইংরেজিতে ‘বাংলাদেশ ফ্ল্যাগ’ লিখে সার্চ দিলে নারীদের অন্তর্বাস ও পুরুষের হাফপ্যান্ট বিক্রি হতে দেখা যাচ্ছে। তবে বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী এ ধরনের কাজ জাতীয় পতাকার অবমাননার পর্যায়ে পড়ে।

অ্যামাজনে প্রবেশ করে দেখা যায়, আইন্যান্স, লিঙমেই, সেটফ্ল্যাগসহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশের পতাকার আদলে তৈরি অন্তর্বাস ও হাফপ্যান্ট বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়েছে। এসব অর্ন্তবাস ও হাফপ্যান্ট ১৪ থেকে ২৭ ডলারে বিক্রি হচ্ছে। এরমধ্যে নারীদের অন্তর্বাস সবোর্চ্চ ২৭.৯৯ ডলার ও পুরুষের হাফপ্যান্ট সবোর্চ্চ ২১.৯৯ ডলার মূল্য দেখানো হয়েছে।

বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা বিধিমালা-১৯৭২ (সংশোধিত ২০১০)- এ বলা হয়েছে, জাতীয় পতাকাকে পোশাক হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না, এমনকি গায়েও জড়িয়ে রাখা যাবে না। বিধিমালায় আরো বলা হয়েছে, অনুমতি ছাড়া ব্যবসা-বাণিজ্য বা অন্য কোনো উদ্দেশ্যে জাতীয় পতাকাকে ট্রেডমার্ক, ডিজাইন বা পেটেন্ট হিসেবে ব্যবহার করাও শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

২০১০ সালের সংশোধিত পতাকা বিধিমালা অনুসারে জাতীয় পতাকার ব্যবহার বিধি ভঙ্গ করলে সর্বোচ্চ এক বছরের কারাদণ্ড বা পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা কিংবা উভয় দণ্ডের বিধান রয়েছে। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের পতাকা ও তার নকশা ব্যবহার করে পোশাক তৈরি ও বিপণন দেশের আইনের লঙ্ঘন।

যুক্তরাষ্টভিত্তিক ই-কমার্স জায়ান্ট অ্যামাজন বাংলাদেশে সরাসরি ব্যবসার অনুমতি নেই। বর্তমানে এই সাইটটি বিভিন্ন অ্যাফিলিয়েট দ্বারা বাংলাদেশে পণ্য বিক্রি করে আসছে।

উল্লেখ্য, ১৭ জুলাই, বাংলাদেশে ব্যবসা করার বিষয়ে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সঙ্গে বৈঠক করে অ্যামাজন। বৈঠকে দেশের বাজারে পণ্য বিক্রির বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো ঘোষণা না আসলেও দেশের বাজার থেকে অ্যামাজনের মাধ্যমে আমেরিকায় পণ্য বিক্রি করা যাবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম