নিউইয়র্কে ছুরিকাঘাতে আহত বাংলাদেশি বৃদ্ধার মৃত্যু | BD Times365 নিউইয়র্কে ছুরিকাঘাতে আহত বাংলাদেশি বৃদ্ধার মৃত্যু | BdTimes365
logo
আপডেট : ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১১:৪৮
নিউইয়র্কে ছুরিকাঘাতে আহত বাংলাদেশি বৃদ্ধার মৃত্যু
অনলাইন ডেস্ক

নিউইয়র্কে ছুরিকাঘাতে আহত বাংলাদেশি বৃদ্ধার মৃত্যু

নিউইয়র্কের জ্যামাইকা হিলে ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত ৬০ বছর বয়সী বাংলাদেশি নাজমা খানম  মারা গেছেন।

স্থানীয় পুলিশ জানায়, বুধবার রাত ৯টার দিকে কুইন্সের ১৬০, নরমেল রোডের কাছে নাজমা খানমকে  বুকে ছুরিকাঘাতে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগের মুসলিম কমিউনিটির টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানানো হয়, নাজমা খানম তাদের সদস্য পিও কবীরের স্ত্রী। পুলিশ আরো জানায়, এই ঘটনায় বুধবার রাত পর্যন্ত কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। এ বিষয়ে এখনও তদন্ত চলছে।

এর আগে গত ১৩ আগস্ট নিউইয়র্কে দুই বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। নিহতদের একজন মসজিদের ইমাম, অন্যজন ছিলেন তার সহকারী। নিহত নাজমা বেগম শরীয়তপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক সহকারী শিক্ষিকাএবং শরীয়তপুর সরকারি কলেজের রসায়ন বিভাগের সাবেক অধ্যাপক শামছুল আলম খানের স্ত্রী। নাজমা বেগমের মৃত্যুর খবরে তার বাড়ি সদর উপজেলার আটিপাড়ায় চলছে শোকের মাতম।

পরিবারের সদস্যরা জানান, দুর্বৃত্তরা যখন নাজমা বেগমকে ছুরিকাঘাত করে তখন তার সঙ্গে ছিলেন স্বামী শামসুল আলম খান। তিনিই নাজমাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যান।  

নাজমার দেবর এসকান্দার আজম খান জানান, ১৯৭২ সালে শরীয়তপুর সরকারি কলেজের প্রভাষক শামসুল আলম খানের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। এই দম্পতির দুই ছেলে ও এক মেয়ে বড় ছেলে নাজমুল আলম খান লিটু ও মেয়ে তৃণা খানম ঢাকায় থাকেন। ছোট ছেলে শুভকে নিয়ে ২০০৮ সাল থেকে আমেরিকায় বাস করছিলেন এই দম্পতি। ছোট ছেলের বিয়ের উদ্দেশে দুই মাস পরই দেশে ফেরার কথা ছিল পরিবারটির।

এদিকে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে বাংলাদেশি নারী নাজমা খানম নিহতের সময় সিসি  ক্যামেরায় ধারণ করা দুটি ফুটেজ প্রকাশ করেছে পুলিশ। ফুটেজে সন্দেহভাজন এক ব্যক্তিকে দৌঁড়ে পালাতে দেখা গেছে। নিউ ইয়র্কভিত্তিক সংবাদমাধ্যম এবিসি সেভেন আইউয়িটনেস নিউজ খবরটি নিশ্চিত করেছে। তবে সন্দেহভাজনের ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হয়নি। হামলাকারীকে এখনও খুঁজে বেড়াচ্ছে পুলিশ

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল