আপডেট : ৩ জুলাই, ২০২১ ০৮:৩৫

টাইব্রেকারে সুইসদের হারিয়ে সেমিতে স্পেন

অনলাইন ডেস্ক
টাইব্রেকারে সুইসদের হারিয়ে সেমিতে স্পেন

শুরুতে পিছিয়ে পড়ার ধাক্কা সামলে সমতায় ফেরা। অনেকটা সময় ১০ জন নিয়ে লড়াই। একের পর এক প্রতিপক্ষের আক্রমণ থামিয়ে দিয়ে খেলা টাইব্রেকারে নিয়ে যাওয়া। তবে টাইব্রেকারে আর পেরে উঠলেন না সুইজারল্যান্ডের প্লেয়াররা। তাদের স্বপ্ন ভেঙে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম দল হিসেবে সেমিফাইনালে উঠল লুইস এনরিকের দল।

শুক্রবার রাশিয়ার সেন্ত পিতার্সবুর্গে কোয়ার্টার ফাইনালে নির্ধারিত সময়ের পর অতিরিক্ত সময়ে থাকে ১-১ সমতায় থাকা ম্যাচ টাইব্রেকারে ৩-১ গোলে জেতে স্পেন।

ম্যাচজুড়ে স্প্যানিশদের একের পর এক আক্রমণ ঠেকাতে দেওয়াল হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন সুইজারল্যান্ডের গোলরক্ষক ইয়ান সোমের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত নায়ক হয়ে উঠলেন স্পেন গোলরক্ষক উনাই সিমন।

এদিন ম্যাচের শুরু থেকেই দলে ছিলেন না নিয়মিত অধিনায়ক ও মাঝমাঠের সবচেয়ে বড় ভরসা গ্রানিত জাকা। তার পরিবর্তে নামানো হয়েছিল সোমেরের ক্লাব সতীর্থ ডেনিস জাকারিয়াকে। অষ্টম মিনিটে তার ভুলে এগিয়ে যায় স্পেন। ​লেফটব্যাক জর্দি আলবার দূরপাল্লার এক শট তার পায়ে লেগে দিক পাল্টে বল জালে জড়ায়।

২৫ তম মিনিটে কোকের কর্নারে সেসার আসপিলিকুয়েতার হেড ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক। ৫৬তম মিনিটে ভালো একটি সুযোগ পায় সুইসরা। কর্নারে জাকারিয়ার হেডে পোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে যায় বল। খানিক বাদে আরেকটি সুযোগ আসে তাদের সামনে। ভার্গাস বাঁ দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পাস দেন স্টিভেন সুবারকে। কাছ থেকে তার ফ্লিক কর্নারের বিনিময়ে ফেরান সিমোন।

৬৮তম মিনিটে শাকিরি গোলে সমতায় ফিরে সুইসরা। দুই সেন্টারব্যাক পও তোরেস ও এমেরিক লাপোর্তের ভুলে রেমো ফ্রয়লারের পাসে শাকিরির শট পোস্টের ভেতরের দিকে লেগে জালে জড়ায়।

৭৭ মিনিটে বদলি স্ট্রাইকার জেরার্দ মোরেনোকে ফাউল করায় লাল কার্ড দেখেন মিডফিল্ডার রেমো ফ্রয়লার। যদিও লাল কার্ড নিয়ে প্রশ্ন তোলার সুযোগ রয়েছে। রিপ্লেতে দেখা যায় মোরেনোকে ফাউল করা আগেই বলে পা লাগে ফ্রয়লারের।

এরপর বাকি খেলাজুড়ে শক্তিশালী দলের বিপক্ষে এক জন কম নিয়েও নজরকাড়া ফুটবল খেলে সুইজারল্যান্ড। এসময় দেওয়াল হয়ে ছিলেন সুইস গোলরক্ষক ইয়ান সোমের। নিশ্চিত গোল খাওয়ার হাত থেকে দলকে বাঁচিয়েছেন কয়েকবার। পুরো ১২০ মিনিটের খেলায় ১০টি সেভ দেন সমের। যা কি না চলতি ইউরোয় সর্বোচ্চ সেভের রেকর্ড।

অতিরিক্ত ত্রিশ মিনিটেও কোনো গোল না হওয়ায় ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। পেনাল্টি শুট আউটে প্রথম শট মিস করেন স্পেন অধিনায়ক বুসকেটস। তবে নাটকীয়তার বাকি তখনো। ফ্যাবিয়ান স্কার ও ম্যানুয়েল আকনাজির নেওয়া টানা দুই পেনাল্টি ঠেকিয়ে দেন স্প্যানিশ গোলরক্ষক উনাই সিমন। পরে মিস করেন এডওয়ার্ড ভার্গাসও। টাইব্রেকারে ৩-১ এ জয় পায় সুইডেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে