আপডেট : ২৩ জুলাই, ২০১৬ ২২:০৩

প্রেম নাকি লালসা! কেমন আপনার সম্পর্ক

অনলাইন ডেস্ক
প্রেম নাকি লালসা! কেমন আপনার সম্পর্ক

সম্পর্ক গড়তে যত সময় লাগে, ভাঙতে তার চেয়ে অনেক কম সময় লাগে। নানা কারণে বিবাহবিচ্ছেদ হয়। কিছু কারণ প্রকাশ পায়, কিছু পায় না। বিয়ের আগে সঙ্গী বা সঙ্গিনীর প্রতি তীব্র টান, ভালোবাসা, আদর সব কিছু ধীরে ধীরে মুছে যেতে শুরু করল বিয়ের এক বছর পরেই। এরকম তো অনেক সম্পর্কেই হয়। এক সময়ের মধুর সম্পর্ক তিক্ত হয়ে যায় বছর ঘুরতেই। কেন? মনোবিদরা বলছেন, এর কারণ কাম বা লালসা। একজন পুরুষ ও নারীর প্রেমের সম্পর্কে কাম থাকবে, স্বাভাবিক। কিন্তু একই সঙ্গে থাকবে মনের টানও। শুধুই শরীরী চাহিদা থাকলে, সেই সম্পর্ক ভাঙতে বাধ্য। কারণ, শরীরী চাহিদা মিটে গেলেই ধীরে ধীরে মন উবে যায়।

কী ভাবে বুঝবেন, আপনার ভালোবাসা শুধুই শরীরী চাহিদা নাকি সত্যিকারের প্রেম? এই ১০ লক্ষণেই তা বোঝা যায়। বোঝা যায়, শরীরী চাহিদা মিটে গেলেই ভালোবাসার প্রদীপটা ধীরে ধীরে নিভে যাবে কিনা। মিলিয়ে নিন:

১. সঙ্গী বা সঙ্গিনীর ব্যক্তিত্বগত বৈশিষ্ট্যকে মাত্রাতিরিক্ত সম্ভ্রম বা সমীহ করেন।


২. আপনি সব সময় সেই মানুষটার মুড বোঝার চেষ্টা করেন। তিনি আপনার প্রতি কতটা খোলামেলা, সেই দিকে সব সময় নজর রাখেন।

৩. তাঁর সঙ্গে কথাবার্তা বেশির ভাগটাই অবাস্তব ও কামঘন। সব সময়ই প্রশংসায় মোড়া। কোন সমালোচনা নেই।

৪. ওই মানুষটার প্রতি আপনি মোহিত। সারাক্ষণ তাঁকে ঘিরেই আপনার চিন্তাভাবনা, উৎ‌সাহ।

৫. আপনি তাঁর প্রেমিক হতে চান সর্বদা। বন্ধু নয়।

৬. যে কোন ভাবে তাঁর সঙ্গে সেক্সটাই আপনার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আর কিছু নিয়েই আপনি মাথা ঘামান না।

৭. সেই মানুষটার জীবনযাপনের দিকে আপনার নজর বেশি, মনের প্রতি নয়।

৮. ওই সম্পর্ক থেকে আপনি কী পাচ্ছেন, সেটাই আপনার কাছে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। অন্য কিছুর প্রতি নজর নেই।

৯. আপনি তাঁর জন্য কখনোই গর্বিত হন না।

১০. একটা সম্পর্কে কিছু দায়িত্ব, কর্তব্য থাকে। সেই দায়িত্ব বা কর্তব্যগুলি নিয়ে আপনি আদৌ চিন্তিত নন। আপনার কথায় শুধুই কামনা, লালসা।

উপরে