আপডেট : ২৮ জুন, ২০১৮ ২১:০৯

ছবির শুটিংয়ে পোড়ানো হলো সাত লাখ টাকার বাস!

অনলাইন ডেস্ক
ছবির শুটিংয়ে পোড়ানো হলো সাত লাখ টাকার বাস!

ছবির শুটিংয়ে পোড়ানো হলো সাত লাখ টাকার বাস। সম্প্রতি শাহবাগে দৃশ্যটি ধারণ করা হয়। 

ঈদের পরপরই ছবির প্রযোজক আবদুল আজিজ জানিয়েছিলেন, ‘দহন’ দেশের প্রতি অন্য রকম দায়িত্ববোধের একটি ছবি। এটি মুক্তির পর সবাই তা উপলব্ধি করতে পারবেন।

‘দহন’ ছবির তিনটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন ‘পোড়ামন ২’ ছবির আলোচিত জুটি সিয়াম ও পূজা এবং ‘ছুঁয়ে দিলে মন’ ছবি দিয়ে আলোচিত মম। ঈদের আগে নির্মাতা রায়হান রাফী কিছু অংশের শুটিং করলেও ঈদের ছুটির পর থেকে পুরোদমে কাজ চলছে। একটানা কাজটি শেষ করার ইচ্ছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের। ছবিটি নিয়ে বিন্দুমাত্র আপস করছেন না সংশ্লিষ্ট কেউই।

ছবির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার প্রধান আবদুল আজিজ বলেন, ‘আমার প্রতিষ্ঠান থেকে বাণিজ্যিকভাবে অনেক ছবি বানানো হয়েছে। তবে এ ছবিটি আগের সব কটির চেয়ে আলাদা। এই ছবিকে দেশের প্রতি আমার দায়বদ্ধতা বলতে পারেন। তাই কাস্টিংয়ে যেমন আমরা কোনো ছাড় দিইনি, তেমনি প্রপসসহ আনুষঙ্গিক সবকিছুতেই বাস্তবতা বজায় রাখতে চেয়েছি। এই যেমন বাস পোড়ানোর এই দৃশ্যটিতে আমরা কোনো কম্প্রোমাইজ করিনি। ছবিটি মুক্তির পর এমন আরও অনেক কিছুই দর্শকেরা দেখবেন, যা আগে দেখেননি।’

ছবির পরিচালক রায়হান রাফী জানান, শাহবাগে ছবির বাস পোড়ানোর দৃশ্যধারণ করা হয়েছে ঈদের ছুটির সময়ে। ঢাকা তখন ফাঁকা থাকায় কাজটা অনেকটা সহজ হয়েছে। ‘দিনদুপুরে এমন দৃশ্য দেখে, তারপরও অনেক লোক জড়ো হয়ে যায়’—রাফী বলেন।

‘দহন’ ছবিতে সিয়াম একজন বখাটে যুবকের চরিত্রে আর পোশাককর্মী হিসেবে থাকছেন পূজা। মম অভিনয় করেছেন সাংবাদিকের চরিত্রে। আবদুল আজিজ বলেন, ‘একজন বখাটে যুবক তার পরিবার, সমাজ ও দেশের জন্য কতটা দুঃখ-দুর্দশা বয়ে আনতে পারে, তা তুলে ধরার চেষ্টা থাকবে আমাদের এই ছবিতে। আমি বিশ্বাস করি, ছবিটি দেখার পর বাংলাদেশের তরুণেরা আর বখাটেপনা করার সাহস পাবে না। আর যারা বখাটে, তারা সে পথ থেকে ফিরে আসতে চেষ্টা করবে, এমনকি নিজেদের কর্মকাণ্ডের জন্য অনুতপ্ত হবে।’

শুটিং শুরুর আগে থেকেই ‘দহন’ ছবিটি বেশ আলোচিত। সিয়াম ও পূজাকে চূড়ান্ত করার পর দ্বিতীয় নায়িকা কে হবেন, তা নিয়ে বেশ শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। এরপর বেশ জমকালো আয়োজনে গত এপ্রিল মাসের শেষ দিকে ‘দহন’ ছবির দ্বিতীয় নায়িকার নাম ঘোষণা করা হয়। রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে আমন্ত্রিত অতিথিদের উপস্থিতিতে সেদিন ঘোষণা করা হয়, লাক্স তারকা বাঁধন এই ছবিতে অভিনয় করবেন।

নাম ঘোষণার কিছুদিন পর জানা যায়, ব্যক্তিগত কারণে ছবিটিতে কাজ করতে পারছেন না বাঁধন। এরপর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কথা হয় নায়িকা পূর্ণিমার। জানা যায়, ছবিটিতে অভিনয়ের জন্য পূর্ণিমা চুক্তিবদ্ধ হন। কিন্তু ‘দহন’ ছবিতে তাঁর কাজের খবর গণমাধ্যমে ভিন্নভাবে উপস্থাপন করার ব্যাপারটি নাকি পছন্দ হয়নি পূর্ণিমার। বিষয়টি ইতিবাচকভাবে নিতে পারেননি বলে ‘দহন’ ছবিতে কাজ না করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। পূর্ণিমার সরে দাঁড়ানোর কয়েক দিনের মধ্যে ‘দহন’ ছবির নায়িকা চূড়ান্ত করা হয় মমকে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে