আপডেট : ১ মার্চ, ২০১৮ ২০:০৮

'উন্মাদনা তোমার দু বাহু জুড়ে, এ কেমন নেশা...'

অনলাইন ডেস্ক
'উন্মাদনা তোমার দু বাহু জুড়ে, এ কেমন নেশা...'

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে বর্তমানে ফেসবুক সকলের কাছেই বেশ জনপ্রিয়।  ফেসবুক ব্যাবহারকারীরা তাদের বিভিন্ন সময়ের ছবি ও কার্যক্রম তাদের ফেসবুকের ওয়ালে শেয়ার করেন। এতে লাইক বা কমেন্টস দিয়ে পোষ্টকারীকে জানানো যায় অন্যজনের অভিমত।  এতে ছবি পোষ্ট করে বিভিন্ন সময়ে বেশ বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হয় অনেককেই।

এমনই এক পরিস্থিতির স্বীকার হয়েছেন মডেল ও চিত্রনায়িকা সানাই। গত পহেলা ফাল্গুনে তিনি তাঁর ব্যাক্তিগত ফেসবুক ওয়ালে বেশ কিছু ছবি পোষ্ট করেন। যেখানে সানাই লিখেছিলেন ‘বসন্ত কাল রাতে আমাকে বলেছে কানে কানে, শানাই এ কেমন মাদকতা, উন্মাদনা তোমার দু বাহু জুড়ে.. এ কেমন নেশা.. এ কেমন উছলানো চাহুনি দুকূল ছাপানো জোয়ার তোমার চিবুকে এ কেমন বিষ মোদোরি কামড়ে সব্বাইকে মেরেছ তুমি.... তবে কি নবিন বসন্ত এলো??? আমি শুধুই হেসেছি’।

ফেসবুকে পোষ্ট করা সেই ছবিগুলো নিয়ে মিডিয়া পাড়ায় চিত্রনায়িকা সানাইকে নিয়ে তৈরি হয় নানা ধরনের সমালোচনা। যেখানে ছবি গুলোর কমান্টে জমা পড়ে নানা ধরনের খারাপ মন্তব্য।

তার পোষ্ট করা এই ছবিগুলোই বাঁধিয়েছে ঝামেলা। ফেসবুকে এসকল ছবি পোস্টের অভিযোগে চিত্রনায়িকা সানাইয়ের নামে উকিল নোটিশ পাঠিয়েছেন এর এডভোকেট ডি. এইচ দিপু নামের একজন আইনজীবি।  তার মতে এই ছবিগুলো ছিল অশ্লীল।

ফেসবুকে পোস্ট করা ছবিগুলোর প্রেক্ষিতে গত ২২ তারিখে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি এডভোকেট ডি. এইচ দিপু চিত্রনায়িকা সানাই এর নামে একটি উকিল নোটিশ তার বাসায় পাঠিয়ে দেন।

সানাইকে পাঠানো সেই উকিল নোটিশ তিনি উল্লেখ করেন, আমি এডভোকেট ডি. এইচ দিপু, আমি অত্র লিগ্যাল নোটিশ গ্রহীতাকে নিম্ন লিখিত মর্মে অবহিত করছি যে, আপনি সানাই মাহবুব সুপ্রভা গত ১৩/০২/২০১৮ ইং তারিখে ৬:১৩ (পি.এম) ঘটিকার সময় ‘Sanayee Mahbob Suprova’ নামক ফেসবুকে আইডি থেকে স্বল্প বসন পরিহিত ৪টি অশালীন ছবি পোস্ট করেন। পোস্টটি অল্প সময়ের মধ্যেই একাধিক আইডি থেকে শেয়ার করা হয় ও সমালোচনার ঝড় তোলে। আপনার এহেন মানসিকতা যুব সমাজকে নৈতিকতা বিবর্জিত কাজে উদ্বুদ্ধ করে। আপনি হাজার বছরের বাঙালী সংস্কৃতি, ধর্মীয় মূল্যবোধ, বঙ্গ নারীর সম্মান ও মর্যাদা ক্ষুন্ন এবং সাধারণ মানুষের অনুভূতিতে আগাত করেছেন। যা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। আপনি নোটিশ প্রাপ্তির সাথে সাথে ঐ সকল কুরুচিপূর্ণ পোস্ট আপনার আইডি থেকে সরিয়ে নিবেন এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের অসামাজিক, জনমনে ঘৃনা ও উত্তেজনা সৃষ্টিকারী পোস্ট দেয়া থেকে বিরত থাকবেন। নতুবা আপনার প্রতি আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হব। অত্র লিগ্যাল নোটিশ এক কপি ভবিষ্যৎ কার্যক্রমের জন্য আমার সেরেস্তায় রক্ষিত রইল।

পরদিকে উকিল নোটিশ পাওয়া পর চিত্রনায়িকা সানাই আজ নিজের ফেসবুক ওয়ালে নোটিশসহ আবার একটি পাল্টা পোস্ট দেন। যেখানে তিনি লিখেন, মাথায় বাজ পড়তেছে আমার। আর কতো?? ১ লা ফাল্গুনে আমি ফেসবুকে কি ছবি আপলোড করছি তার জন্য আমার বাসার ঠিকানায় ঊকিল নোটিশ পাঠিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট এর ঊকিল। এটা কতোটা যুক্তিসংগত হয়েছে?? আমি কি আসোলেও তেমন কোন পিক আপ দিয়েছি?? এগুলো কেন করছেন আপনারা? কোন উদ্দেশ্য থেকে, আমার জানা দরকার। শুরু থেকেই আমার ডানে গেলে দোষ, বামে গেলে দোষ.. কাহিনী কি?? আর এই নোটিশ পাওয়ার পর, আপনারা কি মনে করেছেন, আমি বাসায় লেপ গায়ে দিয়ে কান্না করব?? স্যরি, আলহামদুলিল্লাহ্ আমি অতোটা নরম মনের না। আল্লাহ্ আমাকে অনেক সাহসী বানিয়েছেন। এগুলা করে লাভ নাই।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে সানাই বলেন ‘ আমি পহেলা ফাল্গুনে কিছু ছবি আমার ফেসবুকে দিয়েছিলাম, এগুলো নিয়ে বেশ কিছু ভালো মন্দ মিলিয়ে মন্তব্য হয়েছে। আমি এগুলো পাত্তা দেইনি।  আমাকেই কেনো এ নোটিশ পাঠানো হল।  আমার থেকেও আরো বাজে অঙ্গভঙ্গীর ছবি অনেকেই তাদের ফেসবুকে পোষ্ট করেন।  আমি মনে করি আমার কোন পরিচিত জন এই কাজটি করিয়েছে।

উকিল নোটিশ পাঠানো সেই ব্যাক্তিকে চেনেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে সানাই বলেন, না আমি তাকে চিনি না বা তাঁর সাথে আমার কখনো দেখা তো দূরে থাক কথাও হয়নি। এটা আমার বিরুদ্ধে একটা চক্রান্ত।  আমার পরিবারের কাছে এর জন্য আমাকে অনেক কথা শুনতে হয়েছে। সবকিছুর পর এসবের ভয় দেখিয়ে আমাকে আমার কাজ থেকে সরানো যাবে না। আমাকে উকিল নোটিশের ভয় দেখিয়ে কোন লাভ নেই। আমি আমার মত করে কাজ করব এটা চূড়ান্ত’।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে