আপডেট : ২ জুন, ২০১৬ ০৯:১৬

চোরাকারবারিদের সঙ্গে পুলিশ-বিজিবির গোলাগুলি, নিহত ১

অনলাইন ডেস্ক
চোরাকারবারিদের সঙ্গে পুলিশ-বিজিবির গোলাগুলি, নিহত ১

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার সীমান্তবর্তী রতনপুর গ্রামের শালুয়ার মাঠে মাদক চোরাকারবারিদের সঙ্গে পুলিশ ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) গোলাগুলি হয়েছে। এ  সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে মো. তরিকুল ইসলাম (৩৮) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

আজ বৃহস্পতিবার (২ জুন) ভোররাত সাড়ে ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তরিকুলের বাড়ি জেলার পাঁচবিবি উপজেলার রতনপুর গ্রামের কাছে চকশিমুলিয়া গ্রামে। তাঁর বাবার নাম আয়েজ উদ্দিন।

পুলিশের ভাষ্য, গোলাগুলিতে নিহত তরিকুল ‘মাদক সম্রাট’ হিসেবে পরিচিত। তরিকুল ও তাঁর সঙ্গীদের সঙ্গে গোলাগুলির সময় পুলিশের এক কনস্টেবল ও বিজিবির দুই সিপাহি আহত হয়েছেন। গোলাগুলির পর চোরাকারবারিদের ফেলে যাওয়া বেশ কিছু হাঁসুয়া, চায়নিজ কুড়াল, লাঠি ও ২০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।

আহত তিনজন হলেন—পুলিশ কনস্টেবল অন্তিম এবং বিজিবির সিপাহি সালাউদ্দিন ও সুফল। তাঁদের জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গোলাগুলির বিষয়ে জানতে কথা হয় জয়পুরহাট-৩ বিজিবির কর্মকর্তা মেজর এম আশরাফ আলী ও জয়পুরহাটের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) অশোক কুমার পালের সঙ্গে। তাঁরা জানান, আজ ভোররাতে পুলিশ ও বিজিবির সদস্যরা রতনপুর গ্রামে মাদকবিরোধী যৌথ অভিযান চালান। ওই সময় ভারতীয় ফেনসিডিলসহ একদল মাদক চোরাকারবারি দেশি অস্ত্র নিয়ে পুলিশ ও বিজিবির ওপর চড়াও হয়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ ও বিজিবি শটগানের গুলি ছোড়ে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে তরিকুল ঘটনাস্থলে নিহত হন। আহত হন পুলিশ-বিজিবির তিন সদস্য।

ওই দুই কর্মকর্তা আরো জানান, নিহত তরিকুলের নামে পাঁচবিবি থানায় মাদক পাচার, চোরাচালান, বিজিবির ওপর হামলার ঘটনায় ১১টি মামলা রয়েছে।

উপরে