আপডেট : ২৩ মে, ২০১৬ ২১:০০
পরিচালনা নীতিমালা লঙ্ঘন

বন্ধ হয়ে যেতে পারে ঢাকার চারটি বেসরকারী মেডিকেল কলেজ!

অনলাইন ডেস্ক
বন্ধ হয়ে যেতে পারে ঢাকার চারটি
বেসরকারী মেডিকেল কলেজ!
স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয় মন্ত্রনালয়ের সভা

ঢাকার চারটি বেসরকারী মেডিকেল কলেজের কার্যক্রম পরিচালনার বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের সভায়। এগুলো হচ্ছে বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ, পপুলার মেডিকেল কলেজ, উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ এবং উত্তরা উইমেন্স মেডিকেল কলেজ। এসব কলেজের পরিচালনা পর্ষদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তাঁরা জমি ও পরিচালনা নীতিমালা সঠিকভাবে পালন করেন নি।
গত ২২ মে রবিবার এ বিষয়ে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক বৈঠকে ওই চারটি বেসরকারী মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষকে জমি নিবন্ধনসহ মেডিকেল কলেজ পরিচালনার নীতিমালা প্রতিপালনের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আগামী ১৫ দিনের মধ্যে দাখিল করতে বলা হয়েছে। এতে ব্যর্থ হলে কলেজগুলোর একাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।
একইসঙ্গে বৈঠকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (চিকিৎসা শিক্ষা) এর নেতৃত্বে বেসরকারি কলেজ কার্যক্রম পরিদর্শন কমিটিকে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে অন্যান্য বেসরকারি মেডিকেল কলেজসমূহ পরিদর্শন করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। প্রতিবেদন দাখিলের পর কলেজগুলোর একাডেমিক কার্যক্রমের বিষয়ে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে সভায় জানানো হয়।
সভায় মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বিমান কুমার সাহা এনডিসি, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মোহাম্মদ নূরুল হক, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অধ্যাপক ডা. মাহমুদ হাসান, মহাসচিব অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলান, বিএমডিসি সভাপতি অধ্যাপক ডা. শহীদুুল­াহ্সহ মন্ত্রণালয় এবং অধিদপ্তরের ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উপরে