আপডেট : ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৫১

কার খবর কে দেয়!

স্পোর্টস ডেস্ক
কার খবর কে দেয়!

কোর্টনি ওয়ালশ এক জায়গার চাকরি ছেড়ে যোগ দিচ্ছেন আরেক জায়গায়। নতুন কর্মস্থলেরই তাঁর কাজে যোগদানের খবর জানানোর কথা, ছেড়ে আসা কর্মস্থলের কিছুতেই নয়। কিন্তু এই জ্যামাইকানের বাংলাদেশের বোলিং কোচ হওয়ার খবর দেওয়ার ক্ষেত্রে ঘটল ঠিক উল্টো ঘটনাই।  বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়ার আগেই সেটি দিয়ে ফেলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড (ডাব্লিউআইসিবি)। এমন অদ্ভুত কাণ্ড ঘটানোর জন্য বিসিবির পক্ষে চটে যাওয়া খুব স্বাভাবিক। যদিও মুখপাত্র জালাল ইউনুস সেটি দুয়েক কথায় প্রকাশ করা ছাড়া তেমন কিছু বলেননি, ‘ওদের এমনটি করা কিছুতেই উচিত হয়নি।’ এমনকি বিসিবির জন্য নতুন করে জানানোর কিছুও অবশিষ্ট রাখেনি তাঁরা।

২০১৯ সালে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় ওয়ানডে বিশ্বকাপ পর্যন্ত ওয়ালশকে চুক্তিবদ্ধ করার বিষয়টিও উলে­খিত ছিল ডাব্লিউআইসিবির বিবৃতিতে। জাতীয় দলের হেড কোচ চন্দিকা হাতুরাসিংহে, সহকারী কোচ রিচার্ড হালসাল এবং স্ট্রেন্থ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ মারিও ভিল­ভারায়েনদের সঙ্গে বিসিবির চুক্তিও ওই বিশ্বকাপ সামনে রেখে একই বছরের ৩১ জুলাই পর্যন্ত। ক্যারিবীয় বোর্ডের দেওয়া বিবৃতির ঘন্টাখানেক পর বিসিবির সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে অবশ্য নতুন কিছুই জানার ছিল না। কারণ ডাব্লিউআইসিবির বিবৃতিতে বাংলাদেশের বোলিং কোচ হওয়া নিয়ে এই জ্যামাইকানের উচ্ছ¡সিত প্রতিক্রিয়াও ছিল, ‘বিসিবিতে বিশেষজ্ঞ বোলিং কোচ হিসেবে যোগ দিয়ে আমি রোমাঞ্চিত। ছেলেদের সঙ্গে কাজ শুরুর জন্য তর সইছে না আমার। দূর থেকে কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশের ক্রিকেটকে অনুসরণ করে বুঝেছি দারুণ প্রতিভাবান সব ক্রিকেটার আছে ওখানে।’

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে

উপরে