আপডেট : ১৫ আগস্ট, ২০১৬ ১২:১২

মিসবাহ-উল হককে অনুকরণ করতে চান আশরাফুল

বিডিটাইমস ডেস্ক
মিসবাহ-উল হককে অনুকরণ করতে চান আশরাফুল

বাংলাদেশের জার্সি গায়ে ৬১টি টেস্ট, ১৭৭টি ওয়ানডে আর ২৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলা ৩২ বছর বয়সী মোহাম্মদ আশরাফুল আরও ১০ বছর ক্রিকেট খেলতে চান। ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আশরাফুর এমনটা জানান। আর এ ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা টাইগারদের সাবেক এই দলপতি অনুকরণ করতে চান পাকিস্তানের টেস্ট অধিনায়ক মিসবাহ-উল হককে।

সর্বকনিষ্ঠ টেস্ট সেঞ্চুরিয়ান আশরাফুল বাংলাদেশের ক্রিকেটে কলঙ্কের কালিমা লেপে দেন বিপিএলে ম্যাচ ফিক্সিং করে। শাস্তিস্বরূপ ভোগ করেন তিন বছরের নিষেধাজ্ঞা। তবে গত শনিবার থেকে (১৩ আগস্ট ২০১৬) আর 'নিষিদ্ধ ক্রিকেটার' নন তিনি। তিন বছরের নিষেধাজ্ঞা শেষ করে মুক্ত আশরাফুল এখন ঘরোয়া ক্রিকেটে ফেরার অপেক্ষায়। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা, আইসিসির 'গুড অব কন্ডাক্ট' সার্টিফিকেট পেলেই ঘরোয়া লিগে খেলতে কোনো বাধা থাকবে না আশরাফুলের। দু-একদিনের মধ্যেই সেটি বিসিবির কাছে পাঠাবে আইসিসি। তবে, বিপিএল ছাড়া বিসিবির সব টুর্নামেন্টেই খেলতে পারবেন আশরাফুল। যদিও জাতীয় দলে বিবেচনায় আসতে তাকে অপেক্ষা করতে হবে আরও দুই বছর। ঘরোয়া ক্রিকেটে মুক্তির দিন (১৩ আগস্ট) লন্ডন থেকে দেশে ফেরেন আশরাফুল।

বিমানবন্দরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে আশার কথাই শোনান এই ক্রিকেটার, দেশের জন্য সেরাটা দেওয়ার এখনও বাকি। হয়ত আমি সে সুযোগ পাব। আমি জানি লড়াই করেই আমাকে ফিরতে হবে। মানসিকভাবে সে চ্যালেঞ্জ নিতে আমি প্রস্তুত। ২০১৩ সালের ১৩ আগস্ট প্রাথমিকভাবে আট বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন আশরাফুল। নিষিদ্ধ হলেও তিনি ২০১৪ ও ২০১৫ সালে আমেরিকায় বেশ কিছু ম্যাচ খেলেছেন। এ বছর যুক্তরাজ্যে আরও কিছু ম্যাচ খেলা আশরাফুল ক্রিকইনফোকে জানান, আমি সিলেটে গিয়ে আমন্ত্রণমূলক কিছু ম্যাচ খেলেছি। টি-টোয়েন্টির একাধিক টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছি। মুস্তাফিজের সাতক্ষীরাতেও আমি খেলেছি। এখন আমি দেশের মাটিতে ঘরোয়া ক্রিকেটের অপেক্ষায়। নিজেকে প্রমাণের সুযোগ পেলে আমি সেরাটা দিয়েই খেলবো।

তিনি আরও জানান, বাংলাদেশের কন্ডিশনে একজন ক্রিকেটার ৩০ বছর পেরিয়ে গেলে তাকে টিকে থাকতে সংগ্রাম করতে হয়। আমাকে দীর্ঘ সময় ক্রিকেটের বাইরে থাকতে হয়েছে, যা এ দেশের আর কোনো ক্রিকেটারকে থাকতে হয়নি। চ্যালেঞ্জ নিয়েই আমি ফিরতে চাই। আরও ১০ বছর ক্রিকেট খেলতে চাই। পাকিস্তানের মিসবাহ ৪২ বছর বয়সে এখনও খেলছেন। তাকে অনুকরণ করতে চাই।

জেডএম

উপরে