আপডেট : ১৬ এপ্রিল, ২০১৬ ০৯:৫৭

আইপিএলে প্রথম জয়ের দেখা পেলো দিল্লি

বিডিটাইমস ডেস্ক
আইপিএলে প্রথম জয়ের দেখা পেলো দিল্লি

অমিত মিশ্রা দারুণ বল করলেন। ৩ ওভারে নিয়ে নিলেন ৪ উইকেট। শেষ ওভারটি করার সুযোগ পেলে টি-টোয়েন্টিতে ৫ উইকেটের গৌরবও হয়তো অর্জন করতে পারতেন। অধিনায়ক জহির খান আর তাকে বল দেননি। কিন্তু শীর্ষ ৫ ব্যাটসম্যানের ৪ জনকে তুলে নিয়ে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মেরুদণ্ডটাই ভেঙ্গে দিয়েছিলেন মিশ্রা। তাতে এবারের আইপিএলে দ্বিতীয় ম্যাচে এসে প্রথম জয়ের দেখা পেয়েছে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস। পাঞ্জাবকে বেশ সহজেই ৮ উইকেটে হারিয়েছে তারা। দুই ম্যাচের দুটিতেই হারলো প্রিতি জিনটার পাঞ্জাব।

দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায় আগে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৯ উইকেটে মাত্র ১১১ রান তোলে পাঞ্জাব। টার্গেট বড় নয়। এর মধ্যেও ওপেনার কুইন্টন ডি কককে দুটি লাইফ দিলেন পাঞ্জাবের ফিল্ডাররা। ৫৯ রানে অপরাজিত থেকে জয়টাকে আরো সহজ করতে ভুল করেননি এই প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান। ১৩.৩ ওভারেই ১১৩ রান করে জিতেছে দিল্লি।

দিনটা আসলে ম্যাচের সেরা মিশ্রার। তিনি বল হাতে নেয়ার সময় ১ উইকেটে ৩৭ রান পাঞ্জাবের। ভালোই চলছিল। কিন্তু ম্যাচের নিজের প্রথম বলেই শন মার্শকে (১৩) শিকার করেছেন মিশ্রা। পরের ওভারে নিয়েছেন ২ উইকেট। ফিরে গেছেন অধিনায়ক ডেভিড মিলার (৯) ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (০)। ৩ বিদেশীকে শিকার করার পর একাদশ ওভারে মিশ্রা তুলে নিয়েছেন সেট হয়ে যাওয়া মনন ভোহরাকেও (৩২)। ৫৯ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর আর ফিরতে পারেনি পাঞ্জাব। ১১ রানে ৪ উইকেট মিশ্রার। জহির ৪ ওভারে ১৪ রানে নিয়েছেন ১ উইকেট।

এত অল্প রান করে জেতা কঠিন। কিন্তু ৯ রানের সময় শ্রেয়াশ আইয়ারকে ফিরিয়ে দিলো পাঞ্জাব। পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে এলো মাত্র ২৮ রান। এরপর ডি কক ও সাঞ্জু স্যামসন ৯১ রানের জুটি গড়লেন। স্যামসন ৩৩ রান করেছেন। জয় দিল্লির কাছে সহজেই ধরা দিয়েছে। ডি কক ৪২ বলে ৫৯ রানে অপরাজিত থেকেছেন ৯টি চার ও ১টি ছক্কা মেরে।

জেডএম

উপরে