আপডেট : ৩০ জুলাই, ২০২০ ১২:৪৬

শ্বশুরবাড়ি থেকে গরু চুরি করে বিক্রির সময় ধরা খেলেন জামাই!

অনলাইন ডেস্ক
শ্বশুরবাড়ি থেকে গরু চুরি করে বিক্রির সময় ধরা খেলেন জামাই!

সিলেটের বিয়ানীবাজারে শ্বশুরবাড়ি থেকে গরু চুরি করে পার্শ্ববর্তী উপজেলার একটি পশুর হাটে বিক্রিকালে হাতেনাতে ধরা পড়েছেন জামাই। বুধবার বিকালে বড়লেখা উপজেলার বর্ণি ইউনিয়নের ফকিরবাজার হাটে এ ঘটনা ঘটে।

চোরাই গরুসহ সোহেল আহমদ (২৮) নামের ওই যুবককে বিয়ানীবাজার পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন স্থানীয়রা। সোহেল বিয়ানীবাজারের লাউতা ইউনিয়নের নন্দিরফল এলাকার মোজেম্মেল আলীর ছেলে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে বিয়ানীবাজারের মোল্লাপুর ইউনিয়নের পাতন উছপাড়া গ্রাম থেকে চাচা শ্বশুরের একটি গরু চুরি করে নিয়ে যান সোহেল আহমদ। পরে বুধবার বিকেলে চুরি করা গরুটি বিক্রি করতে পার্শ্ববর্তী বড়লেখা উপজেলার বর্ণি ইউনিয়নের ফকিরবাজার কোরবানির পশুর হাটে নিয়ে যান তিনি। ফকিরবাজার হাটে গরুটির দাম তুলনামূলক কম চাওয়া এবং তাড়াহুড়ো করে বিক্রির প্রবণতা দেখে স্থানীয়দের সন্দেহ হয়। তারা তাকে আটক করে বর্ণি ইউনিয়ন পরিষদে রাখেন। পরে খবর পেয়ে গরুসহ সোহেলকে আটক করে পুলিশ বিয়ানীবাজার থানায় নিয়ে যায়।

রাতে বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনী শংকর কর জানান, চোরাই গরুসহ সোহেল আহমদ নামের একজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় বুধবার রাতে গরুর মালিক বিয়ানীবাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে