আপডেট : ৩ জুন, ২০২০ ১২:৩৮

মৃত শিশুকে জীবিত করতে লবণ থেরাপি, অত:পর...

অনলাইন ডেস্ক
মৃত শিশুকে জীবিত করতে লবণ থেরাপি, অত:পর...

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে পুকুরের পানিতে পড়ে আব্দুল্লাহ নামের আড়াই বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।
মৃত ওই শিশু উপজেলার শালদাইর গ্রামের মানিক খানের ছেলে।

এদিকে শিশুটিকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করলেও বাড়িতে নিয়ে শিশুটিকে পুনরায় জীবিত করতে লবণ থেরাপি চিকিৎসার নামে পুরো শরীর লবণ দিয়ে ঢেকে দেয়া হয়। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। 

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার শালদাইর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। 

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার শালদাইর গ্রামের মানিক খানের শিশু সন্তানকে রেখে তার মা ধান শুকানোর কাজ করছিল। পরে শিশুটি খেলতে খেলতে বাড়ির পাশের একটি পুকুরে পড়ে যায়। এদিকে শিশুটিকে তার মা দেখতে না পেয়ে আশপাশে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। পরে পুকুরে শিশুর মরদেহ ভাসতে দেখে চিৎকার দেয় তার মা। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। 

অন্যদিকে শিশুর মরদেহ বাড়িতে নেয়ার পর তাকে জীবিত করতে এক কবিরাজ শরীরে লবণ দিয়ে ঢেকে দেয়। প্রায় ঘণ্টা দুয়েক শরীর লবণ দিয়ে ঢেকে রাখা হয়। কিন্তু শিশুর প্রাণ না ফেরায় সন্ধ্যার আগে মরদেহ দাফন করা হয়।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে