আপডেট : ২ জুন, ২০২০ ১২:৫০

ছেলে ও পুত্রবধূর নির্যাতন সইতে না পেরে মায়ের আত্মহত্যা

অনলাইন ডেস্ক
ছেলে ও পুত্রবধূর নির্যাতন সইতে না পেরে মায়ের আত্মহত্যা

নাটোরের সিংড়া উপজেলায় ছেলে ও পুত্রবধূর নির্যাতন সইতে না পেরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করছেন এক মা। সোমবার (১ জুন) বিকেলে সিংড়া উপজেলার মাঝগ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। আত্মহত্যাকারী জুলেখা বেগম (৪৭) একই গ্রামের শহিদুল ইসলামের স্ত্রী।

মৃত জুলেখার স্বামী শহিদুল ইসলাম জানান, তার ছেলে জুয়েল রানা সম্প্রতি প্রেম করে ফাতেমা নামে এক মেয়েকে বিয়ে করেন। এ নিয়ে পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হয়। বাড়িতে অশান্তি লেগেই ছিল। শহিদুল ইসলাম রোববার বাড়িতে ছিলেন না। এ সময় ঝগড়ার একপর্যায়ে তার ছেলে জুয়েল রানা, জুয়েলের ভায়রা সজীব এবং জুয়েলের স্ত্রী ফাতেমা বেগম মিলে জুলেখা বেগমকে মারধর করেন। ঘটনার পর থেকে জুলেখা না খেয়ে খাকেন। সোমবার সারাদিন কিছু না খেয়ে থাকার পর বিকেল ৪টার দিকে ঘরের আড়ার সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন জুলেখা।

এ ব্যপারে সিংড়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরে আলম সিদ্দিকী জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে