আপডেট : ২৬ মে, ২০২০ ১২:০১

হাসপাতাল ভর্তি নেয়নি, গেটের সামনেই সন্তান প্রসব

অনলাইন ডেস্ক
হাসপাতাল ভর্তি নেয়নি, গেটের সামনেই সন্তান প্রসব

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের গেটের সামনে রাশেদা বেগম (৫০) নামে এক নারী সন্তান প্রসব করেছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি না নেয়ার কয়েক মিনিট পর গেটের সামনেই তিনি কন্যা সন্তান প্রসব করেন। ঈদের দিন সোমবার (২৫ মে) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রসূতি রাশেদা বেগম উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নের জামুডাঙ্গা (ভাঙা বাঁধের মাথা) গ্রামের বাদশা মিয়ার স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানান, বিকেলে দামোদরপুর ইউনিয়নের জামুডাঙ্গা গ্রামের বাড়িতে থাকা অবস্থায় রাশেদা বেগমের প্রসব বেদনা ওঠে। পরে তাকে সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসকরা করোনাভাইরাসের অজুহাতে রাশেদাকে ভর্তি করে নেননি। এজন্য চিকিৎসকদের একাধিকবার অনুরোধ করা হলেও কর্ণপাত করেননি তারা। নিরুপায় হয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে বের হয়ে আসার গেট সংলগ্ন রাস্তায় স্থানীয় নারীদের সহযোগিতায় রাশেদা কন্যা সন্তান প্রসব করেন।

সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত চিকিৎসক রিপন কুমার বর্মণ জানান, অধিক বয়সী গর্ভবর্তীদের প্রসববকালীন সময়ে রক্তক্ষরণ বেশি হয়। এ জন্য রাশেদাকে ভর্তি করে নেয়া হয়নি। তাকে অন্যত্র ভর্তির পরামর্শ দেয়া হয়েছিল।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে