আপডেট : ২০ এপ্রিল, ২০১৮ ১৪:৫৯

পরকীয়ার জেরে ‘গোপনাঙ্গ’ কেটে স্কুল শিক্ষককে হত্যা!

অনলাইন ডেস্ক
পরকীয়ার জেরে ‘গোপনাঙ্গ’ কেটে স্কুল শিক্ষককে হত্যা!

বগুড়ায়  গোপনাঙ্গ কেটে ও শ্বাসরোধ করে এক স্কুল শিক্ষককে হত্যা করা হয়েছে। তার নাম আব্দুর রশিদ (৫৩)। ঘটনাটি ঘটেছে বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার ডোমরগ্রাম মধ্যপাড়ায়।

আদমদীঘি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সাঈদ মো. ওয়াহেদুজ্জামান জানান, রাতে বাড়ির পাশে পুকুরে মাছের খাবার দেয়ার কথা বলে আব্দুর রশিদ ঘর থেকে বের হন।এর পর আর রাতে ফিরে আসেননি। ভোরে তার বাড়ি থেকে ১০০ গজ দূরে বিবস্ত্র অবস্থায় লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায় পুলিশ।

ওসি জানান, আব্দুর রশিদ ডুমুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং ওই গ্রামের মৃত আহম্মদ আলীর পুত্র। লাশ উদ্ধারের পর প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে তার গোপনাঙ্গে ও মুখে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

ওই ঘটনায় ডুমুরিয়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক ও তার স্ত্রী আফরোজা বেগমকে পুলিশ আটক করেছে। এর আগেও আফরোজা বেগমের সঙ্গে অবৈধ মেলামেশার অভিযোগে গ্রাম্য সালিশে ওই প্রধান শিক্ষকের ১ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছিলো।

ওসি আরও জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পরকীয়ার জের ধরে  এ হত্যাকাণ্ডটি ঘটে থাকতে পারে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে