আপডেট : ২০ মে, ২০১৮ ২০:০৪

জাতীয় পতাকা নয়, চাঁটাই মুড়িয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে শেষ শ্রদ্ধা!

অনলাইন ডেস্ক
জাতীয় পতাকা নয়, চাঁটাই মুড়িয়ে মুক্তিযোদ্ধাকে শেষ শ্রদ্ধা!

উপরের ছবিটি দেখুন। চাটাইয়ে মোড়ানো এই মৃতদেহটি একজন মুক্তিযোদ্ধার। তিনি পাবনার বেড়া উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা তাহেজ উদ্দিন সরকার। গত ১৮ মে মহান এই মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু হলে ১৯ মে তার দাফন সম্পন্ন হয়। লজ্জাজনক হলো, এই মুক্তিযোদ্ধার শেষ যাত্রায় তাঁকে জাতীয় পতাকা দিয়ে যথাযথ সম্মান দেখনো হয়নি। তাকে চাঁটাই মুড়িয়ে ‘গার্ড অব অনার’ দিয়েছেন সরকারি এ কর্মকর্তারা।

বেড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের পক্ষ  থেকে মরহুমের কফিনে কোন প্রকার জাতীয় পতাকা দিয়ে মোড়ানো ছাড়াই গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়েছে।

বেড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের সভাপতি ইসহাক আলীর কাছে মরহুমের পরিবার এবং স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা পতাকা না জড়ানোর বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি কোন জবাব দেননি।

মরহুমের ছেলে মিলন বলেন, আমার বাবা একজন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা তার ভারত এবং বাংলাদেশের দুটি সনদ পত্র আছে। বেড়া মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের সভাপতি ইসহাক আলী ইচ্ছাকৃতভাবে আমার বাবাকে পূর্ণাঙ্গ রাষ্ট্রীয় মর্যাদা দেয়নি। ইসহাক গোটা মুক্তিযোদ্ধাদের অমর্যাদা করেছে। আমি তার বিচার চাই।

মিলন আরো বলেন, রাষ্ট্রীয় মর্যাদার ব্যাপারে আমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে তিন বার ফোন দিয়ে জানতে চাই যে গার্ড অব অনার দেওয়ার সব কিছু ঠিক আছে কি না ,জবাবে ইউএনও বলেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল সব ব্যবস্থা করেছে। আপনি চিন্তা করবেন না সব কিছু ঠিক আছে। কিন্তু বাস্তবে পূণাঙ্গ রাষ্ট্রীয় মর্যাদা দেওয়া হয়নি।

বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে বেশ সমালোচননা চলছে। অনলাইন একটিভিস্ট কবীর চৌধুরী তন্ময় লিখেছেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে যতটুকু জেনেছি, বেড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের পক্ষ থেকে গার্ড অব অনার-এর ব্যবস্থা করা হয়েছিল। মরহুমের কফিনে কোন প্রকার জাতীয় পতাকা দিয়ে মোড়ানো ছাড়াই গার্ড অব অনার প্রদান করা নিয়ে বেড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের সভাপতি ইসহাক আলীও এ ব্যাপারটি চেপে গিয়ে মন্তব্য করতে রাজী হয়নি। তাহলে কি ধরে নেব, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলও মুক্তিযোদ্ধাদের যথাযথ রাষ্ট্রীয় মর্যাদা দিতে উদাসীন। এই কমান্ড কাউন্সিল কি মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে না?’

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে