আপডেট : ২৯ জুলাই, ২০১৭ ১৮:১৫

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে হাতাহাতিতে ‘আঙুল ভাঙল’ ঢাবি শিক্ষকের

অনলাইন ডেস্ক
শিক্ষার্থীদের সঙ্গে হাতাহাতিতে ‘আঙুল ভাঙল’ ঢাবি শিক্ষকের

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনে সিনেট অধিবেশনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে হাতাহাতির ঘটনায় এক শিক্ষক আহত হয়েছেন। আজ শনিবার (২৯ জুলাই) বিকেল পৌনে ৪টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনের ফটকের কাছে এই ঘটনা ঘটে।

আহত শিক্ষকের নাম রাকিবুল হাসান। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের প্রভাষক।

শিক্ষকের বাম হাতের একটি আঙুল ভেঙে গেছে বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক এ এম আমজাদ জানিয়েছেন। তিনি জানান, আজ বিকেলে সিনেট অধিবেশনের বিরোধিতা করে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের সদস্যরা যখন সিনেট ভবনের ফটক ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করতে যান, তখন তিনি ও কয়েকজন শিক্ষক তাঁদের বাধা দেন। এ সময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে শিক্ষকদের হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত রাকিবুল হাসানের বাম হাতের একটি আঙুল ভেঙে যায়। এখন তাঁকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

আঙুল ভাঙার ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কোনো চিকিৎসকের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

ডাকসু নির্বাচনের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনের দাবিতে আজ বিকেল পৌনে ৪টার দিকে সিনেট ভবনের সামনে বিক্ষোভ শুরু করেন বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রগতিশীল ছাত্রজোটের সদস্যরা। বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা সিনেট ভবনের ফটক ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করেন এবং শিক্ষকদের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন।

আজ বিকেল ৪টা থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনের সিনেট অধিবেশন শুরু হওয়ার সময় নির্ধারিত ছিল।

নিয়ম অনুযায়ী উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনের সময় ডাকসুর পাঁচজন প্রতিনিধি উপস্থিত থাকবেন। কিন্তু ডাকসু নির্বাচন না হওয়ায় ওই পাঁচটি পদ খালি রেখেই সিনেটের অধিবেশন শুরু হওয়ার কথা। ডাকসু নির্বাচন না করে আগে উপাচার্য প্যানেল নির্বাচন করায় এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করে প্রগতিশীল ছাত্রজোট।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত প্রগতিশীল ছাত্রজোটের কর্মীরা সিনেট অধিবেশনের বাইরে বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছেন। স্লোগানে এই সিনেটকে অবৈধ এবং ডাকসু নির্বাচনের দাবি জানানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এ এম আমজাদ বলেন, শিক্ষার্থীরা একটি গণতান্ত্রিক দাবিতে আন্দোলন করায় তাতে বাধা দেওয়া হয়নি। কিন্তু তাঁরা যে শিক্ষকদের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন সেটিও ঠিক হয়নি।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে