আপডেট : ৩০ এপ্রিল, ২০১৬ ২৩:০০

একটা বোতাম টিপলেই পিরিয়ড সমস্যার সমাধান!

অনলাইন ডেস্ক
একটা বোতাম টিপলেই পিরিয়ড সমস্যার সমাধান!

পিরিয়ডের সময় তীব্র যন্ত্রণার শিকার হন অনেকে। এবার এসে গেল তার থেকে মুক্তির সহজ উপায়। মাত্র একটি বোতামের চাপেই দূর হবে দুঃসহ সেই যাতনা থেকে চটজলদি মুক্তি।

আইপাল্‌স মেডিক্যাল সংস্থার সৌজন্যে বাজারে এসেছে এমন এক ডিভাইস, যার সাহায্যে নিমেষে পিরিয়ডের ব্যথা থেকে মুক্তি মিলবে। জানা গিয়েছে, 'লিভিয়া' নামের এই যন্ত্রে রয়েছে একটি বোতাম যাতে চাপ দিলেই সমস্যার সুরাহা পাওয়া যাবে। আশ্চর্যের বিষয়, জৈবিক পদ্ধতি মেনেই গোটা প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হবে।

কী ভাবে কাজ করবে লিভিয়া?

লিভিয়া আসলে একটি চার্জেবল ডিভাইস যা একবার চার্জ দিলে ১৫ ঘণ্টা কাজ করে। যন্ত্রের সঙ্গে রয়েছে কয়েকটি জেল প্যাড, যা একটি ওয়েস্টব্যান্ডের সাহায্যে তলপেট ও কোমরে সেঁটে দিতে হবে। বোতামে চাপ দিলে যন্ত্রটি সুইচ অন হবে এবং যন্ত্রণা উপশমের প্রক্রিয়া শুরু হবে।

জানা গেছে, 'গেট কন্ট্রোল থিওরি' অনুসারে কাজ করে লিভিয়া। এই পদ্ধতিতে যন্ত্রের সাহায্যে একটি নির্দিষ্ট ফ্রিকোয়েন্সির পাল্স ব্যথা উত্‍পাদনকারী স্নায়ুর ভিতর প্রবেশ করে তাকে ব্যস্ত করে তোলে। এর ফলে যন্ত্রণার সংকেত মস্তিষ্কে পৌঁছানোর পথে বাধা পায়, যার জেরে তা রোগী অনুভব করতে পারেন না।

ইজরায়েলের বাবা-ছেলে জুটি জাভি নাচুম ও চেন নাচুম লিভিয়ার জনক। চেন জানিয়েছেন, 'লিভিয়া তৈরির আইডিয়া আসলে আমার বাবার। তিনি রোজগারের জন্য বেশ কিছু মেডিক্যাল পেটেন্ট তৈরি করেন। এর মধ্যে অনেক আইডিয়াই বাস্তবে রূপান্তর করা হয়নি। ফেলে রাখা ওঁর এমন কিছু আইডিয়া ঘাঁটতে গিয়েই লিভিয়া-র মূল ধারণা সম্পর্কে জানতে পারি। এরপর বর্তমান উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে তার বাস্তব রূপ দিই।'

ইতোমধ্যে মাদকের সঙ্গে কোনও সম্পর্ক না থাকায় এই যন্ত্রের বিপুল ক্রাউডফান্ডিং হয়েছে। মনে করা হচ্ছে, প্রধানত পিরিয়ডের ব্যথা দূর করার কাজে ব্যবহার হলেও শরীরের বিভিন্ন রকম যন্ত্রণা ও খিঁচুনি রুখতে কাজ করবে লিভিয়া। তবে এই সম্পর্কে এখনও গবেষণার অবকাশ রয়েছে বলে দাবি চেনের। ১৬৩ জন মহিলার ওপর পরীক্ষামূলক প্রয়োগে আশানুরূপ ফল মিললেও লিভিয়া এখনও এফডিএ-র অনুমোদন পায়নি।

আশার কথা, কিছু দিনের মধ্যে ভারতের বাজারেও পাওয়া যাবে লিভিয়া। সে ক্ষেত্রে পিল ছাড়া পিরিয়ডের যন্ত্রণার হাত থেকে রেহাই দিয়ে নয়া ইতিহাস তৈরি করবে এই ডিভাইস।

উপরে