আপডেট : ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৭:৩৩

পানির দামে ইন্টারনেট দিচ্ছে টেলিটক

অনলাইন ডেস্ক
পানির দামে ইন্টারনেট দিচ্ছে টেলিটক

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের নির্দেশনা পর কম মূল্যে ডেটা বিক্রি শুরু করেছে রাষ্ট্রীয় অপারেট টেলিটক। টেলিটকের ওয়েবাসাইটে দেখা যাচ্ছে, টেলিটক বর্ণমালা সিমে এক জিবি ইন্টারনেট দিচ্ছে ২৩ টাকায়, যার মেয়াদ ৭ দিন; এক জিবি ৪৪টাকায়, মেয়াদ ৩০ দিন এবং ১৭৯ টাকায় ১০ জিবি, মেয়াদ ৩০ দিন।

অন্যদিকে রোববার নিজের ফেসবুক ভ্যারিফাইড আইডিতে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এক স্ট্যাটাসে জানিয়েছেন, ১ জিবি ডাটা ২১ টাকা মেয়াদ ৭ দিন, ১০ জিবি ডাটা ১৬৯টাকা মেয়াদ ৩০ দিন-আমাদের টেলিটকে।

’মন্ত্রীর এই ফেসুবক স্ট্যাটাসে অনেকেই খুশি হলেও প্রায় সবাই মন্ত্রীকে টেলিটকের নেটওয়ার্ক সমস্যার কথা জানিয়েছেন। তাদের জন্য মন্ত্রী জানিয়েছেন, যারা টেলিটকের নেটওয়ার্ক নিয়ে সমস্যায় আছেন তাদেরকে আশ্বস্ত করছি যে দেশব্যাপী নেটওয়ার্ক উন্নয়নের কাজ আমরা করছি। একাধিক প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে।

অত্যন্ত স্পর্শকাতর ব্যক্তিগত তথ্যসহ আমাদের অনেক তথ্যই এখন অনলাইনে থাকায় ক্রমেই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে সাইবার নিরাপত্তার বিষয়টি। এ কারণে কোন দেশের সাইবার নিরাপত্তা কতটা জোরদার তা নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে কম্পেয়ার টেক ডটকম।

বিভিন্ন গবেষণারউদ্ধৃতি দিয়ে সাইবার নিরাপত্তার দিক দিয়ে সবচেয়ে সবচেয়ে খারাপ থেকে সবচেয়ে ভাল ৬০টি দেশের তালিকা দেয়া হয়েছে এতে। এই তালিকায় বিশ্বের সবচেয়ে দুর্বল সাইবার নিরাপত্তার ক্রমে বাংলাদেশ ষষ্ঠ অবস্থানে রয়েছে। বাংলাদেশের চেয়েও খারাপ অবস্থানে রয়েছে প্রথম পাঁচটি দেশ, তারা হচ্ছে— আলজেরিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ভিয়েতনাম, তানজানিয়া ও উজবেকিস্তান।

দুর্বল সাইবার নিরাপত্তায় বাংলাদেশের পরে পাকিস্তান সপ্তম, চীন ১৩তম, শ্রীলঙ্কা ১৪তম এবং ভারত ১৫তম অবস্থানে রয়েছে।বিশ্বে সবচেয়ে শক্তিশালী সাইবার নিরাপত্তা রয়েছে জাপানে। সাইবার নিরাপত্তা দেয়ার জোরদার ব্যবস্থা রয়েছে এমন দেশ হিসেবে জাপানের পর রয়েছে ফ্রান্স, কানাডা, ডেনমার্ক, যুক্তরাষ্ট্র, আয়ারল্যান্ড, সুইডেন, ও ব্রিটেন।

এই তালিকায় প্রস্তুতের সময় কম্পেয়ার টেক, মোবাইলে ও কম্পিউটারে ম্যালওয়ারের উপস্থিতির হার হিসাব করেছে।এ ছাড়া সাইবার নিরাপত্তাবিষয়ক মামলার পরিমাণ, এ- সংক্রান্ত আইন ও সাইবার হামলা ঠেকানোর ব্যবস্থাসহ বিভিন্ন বিষয় বিবেচনা করেছে। তবে, তালিকায় থাকা সবগুলো দেশের তাদের সাইবার নিরাপত্তা ব্যবস্থায় উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন সাধনের সুযোগ রয়েছে বলে জানানো হয় প্রতিবেদনে।

এতে আরও বলা হয়, বাংলাদেশের ৩৫.৯১ শতাংশ অর্থাৎ প্রতি একশটির মধ্যে প্রায় ৩৬টি বা এক-তৃতীয়াংশের বেশি মোবাইলেই রয়েছে ম্যালওয়ার। দেশের ১৯.৭ শতাংশ অর্থাৎ প্রায় পাঁচ ভাগের এক ভাগ কম্পিউটার ম্যালওয়ারে আক্রান্ত।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে