আপডেট : ২৫ মার্চ, ২০১৬ ১১:০৮

নতুন ইলেকট্রিক বাইসাইকেল আনলো 'বোল্ট'

অনলাইন ডেস্ক
নতুন ইলেকট্রিক বাইসাইকেল আনলো 'বোল্ট'
পরিবেশবান্ধব ইলেকট্রিক বাইসাইকেল

নতুন পরিবেশবান্ধব ইলেকট্রিক বাইসাইকেল এনেছে স্যানফ্রান্সিসকো ভিত্তিক মোটরবাইক নির্মাতা-প্রতিষ্ঠান বোল্ট মোটরবাইকস। এতে শক্তির উৎস হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে ইলেকট্রিক ব্যাটারি। তবে, চাইলে প্যাডল করেও চালানো যাবে এটি।

আরো নানা ধরনের প্রযুক্তি-সম্বলিত এই ইলেকট্রিক বাইসাইকেলটি প্রতি ঘণ্টায় প্রায় ৪০ মাইল বেগে চালানো সম্ভব বলে জানিয়েছে সিএনএন।

বোল্ট বাইসাইকেল-এর বিভিন্ন সুবিধা নিয়ে কথা বলেছেন বোল্ট মোটরবাইকস এর সিইও জশ র‌্যাসমুসেন। 'বোল্ট' কে সাধারণ সাইকেল এর মতো যে কোনো জায়গাতেই পার্ক করা যায়। নিরাপত্তার জন্য এতে রয়েছে জিপিএস এর সুবিধা। তাই সাইকেলের অবস্থান পরিবর্তন হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই আপনার স্মার্টফোনটিতে চলে আসবে নোটিফিকেশন। চাইলে এতে সাধারণ সাইকেলের জন্য ব্যবহৃত ‘ইউ-লক’ও ব্যবহার করা যায়।

বোল্ট-এ থাকছেনা কোনো 'কি-হোল'। চাবির পরিবর্তে এটি চালু করার জন্য ব্যবহার করা হয়েছে নিরাপদ 'পাসওয়ার্ড' ব্যবস্থা। স্মার্টফোন থেকে কোড লিখে বা সরাসরি বাইসাইকেলের ড্যাশবোর্ডেই গোপন কোডটি লিখে চালু করা যাবে বাইকটি। এতে আরো থাকছে ইকোনমি মোড থেকে স্পোর্ট মোডে পরিবর্তনের সুবিধা। ইকোনমি মোডে প্রতি ঘন্টায় ২০ মাইল চালানো গেলেও, স্পোর্ট মোডে প্রতি ঘন্টায় ৪০ মাইল বেগে চালানো সম্ভব হবে। একবার চার্জ দিলে পাহাড়ি রাস্তায় এটি ৩০ মাইল চলতে সক্ষম হলেও, সমতল রাস্তায় আরও বেশি চলবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

বোল্ট ইলেকট্রিক বাইসাইকেলটি পেতে হলে ক্রেতাকে গুণতে হবে ৫৫০০ মার্কিন ডলার। শিপিং এবং অন্যান্য খরচ মিলিয়ে সেটা আরও কয়েকশো’ ডলার বৃদ্ধি পাবে। ব্যাটারি খুলে ঘরে নিয়ে রিচার্জের সুবিধা পাওয়ার জন্য ক্রেতাকে আরো ২৫০ ডলার খরচ করে অ্যাডাপ্টার কিনতে হবে।

আপাতত বোল্ট শুধু অনলাইনেই পাওয়া যাচ্ছে। তবে, প্রবল চাহিদার কারণে শিগগিরই সবগুলো বোল্ট ই-বাইক বিক্রি হয়ে যেতে পারে

 

 

উপরে