আপডেট : ৯ মার্চ, ২০১৬ ১৫:৪৭

ভালভাবে গুগ্‌ল ব্যবহার করতে কয়েকটি ইউআরএল জেনে রাখা জরুরি

প্রযুক্তি ডেস্ক
ভালভাবে গুগ্‌ল ব্যবহার করতে কয়েকটি ইউআরএল জেনে রাখা জরুরি

যে কোনও কিছু খুঁজতে গেলেই গুগ্‌ল ভরসা। তথ্য-ভাণ্ডার, জ্ঞানের ভাণ্ডার। কিন্তু আরও ভালভাবে গুগ্‌ল-কে ব্যবহার করতে হলে কয়েকটা ইউআরএল জেনে রাখা একান্ত জরুরি।

গুগ্‌ল ব্যবহারকারীর জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় ১০ টি ইউআরএল—

১। গুগ্‌লে সংরক্ষিত আপনার সব তথ্য আপনি চাইলেই ডাউনলোড করতে পারেন। আপনার ফটো, যোগাযোগের ঠিকানা, জিমেলের মেসেজ এমন কি আপনার ইউটিউব ভিডিও সব যত্ন করে রাখা আছে। সেই সব ডাউনলোড করার ইউআরএল— https://www.google.com/takeout

২। এক জন ব্যক্তি যে সকল ওয়েবসাইট ভিজিট করে সেই সব ওয়েবসাইট ও অন্যান্য বিষয়ের উপরে নির্ভর করে গুগ্‌ল প্রত্যেকের জন্য একটি প্রোফাইল তৈরি করে। আপনার আগ্রহের বিষয়, আপনার বয়স, আপনার জেন্ডার ইত্যাদি অনুমানের চেষ্টা করে গুগ্‌ল। এই অনুমানের উপরে গুগ্‌ল সঙ্গতি রেখে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন দেখায়। নীচের ইউআরএল চমকে দেবে— https://www.google.com/ads/preferences/

৩। গুগল ক্রোম ব্যবহার করে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে নির্দিষ্ট ইউজার নেম ও পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা হয়। গুগলের নিদির্ষ্ট ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে সেই সব পাসওয়ার্ড ও ইউজারনেইম সংরক্ষিত থাকে। https://passwords.google.com

৪। আপনার ওয়েবসাইটের কন্টেন্ট কেউ কপি করেছে। তারা যদি গুগ্‌লের কোনও পরিষেবা গ্রহণ করে আপনি তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে পারেন গুগ্‌লকে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে গুগ্‌ল সেই ওয়েবসাইটের নির্দিষ্ট বিষয়টি সার্চ রেজাল্ট থেকে মুছে দেবে। https://support.google.com/legal

৫। কারও অ্যান্ড্রয়েডে যদি লোকেশন সার্ভিস অন থাকে এবং তিনি এই মুহূর্তে কোথায় আছেন, বা কত বেগে অন্য কোথাও যাচ্ছেন তা গুগ্‌ল ম্যাপের সাহায্যে খুঁজে বের করা যায়। শুধু এখনকার নয়, অতীতের তথ্যও গুগ্‌লের কাছে নথিবদ্ধ থাকে। কেউ দেখতে চাইলে নীচের ইউআরএল টাইপ করুন—https://maps.google.com/locationhistory 

৬। গুগ্‌ল কিংবা ইউটিউব আপনার প্রতিটি সার্চ শব্দ জমিয়ে রাখে। আপনি কোন ওয়েবসাইটে ক্লিক করেছেন, কোন ভিডিও দেখেছেন সবই জমা খাকে গুগ্‌লের কাছে। এমনকি আপনি যদি শব্দ দিয়ে সার্চ করেন তারও হদিস পাওয়া যাবে গুগ্‌লের কাছে। অনেকেই এটা বিশ্বাস করতে পারবে না। কিন্তু সত্যিই যে তা হয় তা দেখিয়ে দেবে এই তিনটি ইউআরএল— https://history.google.com https://history.google.com/history/audio https://www.youtube.com/feed/history

৭। নিজের জিমেল অ্যাকাউন্ট থাকলেও অনেক সময়ই কোম্পানির ইমেল অ্যাড্রেস ব্যবহার করতে হয়। গুগ্‌লের সাধারণ সাইন আপ-এ ইউজার নেমের জায়গায় ‘...@gmail.com’ লিখতে হয়। তবে এই ইউআরএলটি ব্যবহার করে যে কোনও ইউজারনেম ব্যবহার করতে পারি— https://accounts.google.com/SignUpWithoutGmail

৮। গুগ্‌ল অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত? যদি মনে হয় আপনার অ্যাকাউন্টটি অন্য কেউ ব্যবহার করছে তবে আপনি চাইলেই জানতে পারবে আপনার অ্যাকাউন্টে কোন কোন ডিভাইস থেকে, কোন আইপি থেকে লগ ইন করা হয়েছে, তাদের সম্ভাব্য অবস্থান সবই দেখতে পাবেন এই ইউআরএল ব্যবহার করে—https://security.google.com/settings/security/activity

৯। গুগ্‌লের নিয়ম অনুসারে ৯ মাসের মধ্যে কমপক্ষে একবার গুগ্‌লে লগ ইন না করলে মেল অ্যাকাউন্টটি নিষ্ক্রিয় হয়ে যায়। তবে আপনি চাইলে গুগল আপনাকে অ্যালার্ট করবে। এই ইউআরএল-এ গিয়ে আপনার মোবাইল ও মেল আইডি লিখুন। নির্দিষ্ট সময়ে আপনার মোবাইলে মেসেজ পাঠাবে গুগ্‌ল। https://www.google.com/settings/account/inactive

উপরে