আপডেট : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৯:২২

শিলা ও মাবিয়ার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

স্পোর্টস ডেস্ক
শিলা ও মাবিয়ার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

সাউথ এশিয়ান গেমসে স্বর্ণজয়ী মাবিয়া আক্তার ও মাহফুজা আক্তার শিলার দরিদ্র পরিবারের বাসস্থানের দায়িত্ব নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাদের পরিবার যাতে ভালো জায়গায় থাকতে পারে এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন। একই সাথে শিলার পরিবারের বিক্রি করা সোনার পদক ফেরত পেতে যথাযথ উদ্যোগ নেওয়ারও নির্দেশ দেন তিনি।

সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নিজেই এ তথ্য জানিয়েছেন। বৈঠক শেষে একাধিক মন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে। সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

ভারতের গৌহাটি ও শিলং এ অনুষ্ঠিত ১২তম সাউথ এশিয়ান (এসএ গেমস) গেমসে মাবিয়া ও শিলা স্বর্ণ পদক অর্জন করে বাংলাদেশের জন্য গৌরব বয়ে আনে। ২৩টি ডিসিপ্লিনের মধ্যে অন্যতম ভারোত্তোলনে স্বর্ণ যেতেন মাবিয়া। ৭ ফেব্রুয়ারি চলতি আসরে মাবিয়া আক্তারের মাধ্যমে প্রথম স্বর্ণ পদক পায় বাংলাদেশ। নারীদের ৬৩ কেজি ওজন শ্রেণিতে মোট ১৪৯ কেজি তুলে স্বর্ণ জেতেন মাবিয়া। ম্যাক্সিমাম ৮২ জার্কে এই পদক জেতেন তিনি।

মাবিয়ার পরিবার অত্যন্ত দরিদ্র। খিলগাঁওয়ের সিপাহীবাগের এক ঘিঞ্জি এলাকার দুই কামরার একটি টিনের ঘরে তাদের বসবাস। অভাব অনটনের সংসারে বাবার ছোট্ট মুদি দোকানটাই তাদের বেঁচে থাকার একমাত্র অবলম্বন। ভারোত্তোলক হওয়ায় কোচের পরামর্শে মাবিয়াকে অনেক প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার খেতে হয়। মেনে চলতে হয় অনেক নিয়ম কানুন। কিন্তু মুদি দোকানি বাবার পক্ষে সেটা সম্ভব হয়ে ওঠে না। অর্থের অভাবে পড়ালেখাও বন্ধ হয়ে গেছে তার।

অন্যদিকে মাহফুজা আক্তার শিলার হাত ধরে এসএ গেমসে দু’টি স্বর্ণ আসে বাংলাদেশে। গত ০৮ ফেব্রুয়ারি ৫০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে স্বর্ণ জেতেন মাহফুজা। ৩৪.৮৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে বাংলাদেশের নারী এ সাঁতারু নিজের দ্বিতীয় স্বর্ণ জেতেন।  এপর আরও একটি স্বর্ণ জেতেন যশোরের নোয়াপাড়ার এই জলকন্যা।

শিলার পরিবারও অভাব অনটনের মধ্যে চলে। অভাবের কারণে মেয়ের জেতা স্বর্ণ পদক বিক্রি পর্যন্ত করতে হয়েছিল তার পরিবারকে। গত ১১ ফেব্রুয়ারি বাংলানিউজের কাছে একান্ত সাক্ষাৎকারে মাহফুজার মা করিমন নেছা বলেছিলেন, ‘অভাবের কারণে একটা স্বর্ণপদক বিক্রি করে দিতি বাধ্য হয়েছি। মেয়েডা কি পরিমাণ সেদিন কেন্দেছিলো তা বলে বোঝাতি পারবো না। আজও খুব খারাপ লাগে সে কথা মনে হলি।’

এদিকে সোমবার অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে মাবিয়া ও শিলার স্বর্ণ পদক অর্জন এবং দেশের জন্য সম্মান বয়ে আনার বিষয়টি মন্ত্রিসভার বৈঠকে ওঠে। তাদের পারিবারিক অবস্থা ও আর্থিক অস্বচ্ছলতার বিষয়টিও আলোচনায় আসে।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ওদের পরিবার যাতে ভালো জায়গায় থাকতে পারে সে জন্য ঘরবাড়ি করে দেওয়া হবে। আমি তো আগেই এ নির্দেশনা দিয়ে দিয়েছি।

এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী জানান, শিলার পরিবার আগেই তার যে স্বর্ণ পদক বিক্রি করেছিল সেটা যাতে তারা ফিরে পায় সে ব্যবস্থা করা হবে। এ ব্যাপারেও প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছি। 

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আইএম

উপরে