আপডেট : ৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৪:২২

ইসিতে আপিল করতে এসে যা বললেন ইমরান সরকার

অনলাইন ডেস্ক
ইসিতে আপিল করতে এসে যা বললেন ইমরান সরকার

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আপিল করেছেন গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার।

সোমবার (০৩ ডিসেম্বর) নিজের মনোনয়ন ফিরে পেতে আপিলের জন্য আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে এসে সাংবাদিকদের কাছে তিনি বেশকিছু অভিযোগ তুলে ধরেন।

গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার বলেন, ‘প্রার্থিতা বহালে আপিল করতে নির্বাচন কমিশনে এসেছি। আশা করি, কমিশন এটা বিবেচনা করবে।’

তিনি দাবি করেন, ‘নগণ্য ইস্যুকে কেন্দ্র করে আমার প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে। আমারসহ অন্যদের মনোনয়ন বাতিলে যেসব কারণ দেখানো হয়েছে, তাতে করে দেশে কোনো বৈধ প্রার্থীই থাকার কথা নয়।’

গণজাগরণ মঞ্চের এই মুখপাত্র বলেন, ‘আমার সমর্থকদের নামের সিরিয়াল একটু এদিক-সেদিক হয়েছে। এতেই অবৈধ বলে ঘোষণা দেয়া হলো। আমার বাড়তি ৫০০ সমর্থন ছিল। তারা সেটি নেননি। এক শতাংশের তালিকা ঠিক ছিল। হয়তো সিরিয়াল এদিক-সেদিক ছিল। এরপর আমি বলেছি, এটা ঠিক করে দেই। কিন্তু, রিটার্নিং কর্মকর্তা আমার আবেদন রাখেননি।’

কুড়িগ্রাম-৪ আসন থেকে নির্বাচন করার জন্য মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন ইমরান এইচ সরকার।

সিইসি ও নির্বাচন কমিশনাররা সংশ্লিষ্টদের সামান্য ভুলে মনোনয়নপত্র বাতিল না করার জন্য মাঠপর্যায়ে নির্দেশনা দিয়েছেন। তারপরও এমন অভিযোগ আসল।

একাদশ সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে সংক্ষুব্ধরা সোমবার থেকে বুধবারের মধ্যে ইসিতে অভিযোগ করতে পারবেন। পরে তাদের আবেদনের উপর ৬ থেকে ৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত শুনানি করে সিদ্ধান্ত দেবে ইসি।

আগামী ৯ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ এবং ৩০ ডিসেম্বর ভোট হবে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে