আপডেট : ১৪ নভেম্বর, ২০১৮ ১০:০৮

'গোপালগঞ্জ-৩ আসনে প্রার্থী দিয়ে লাভ কি, অযথাই'

অনলাইন ডেস্ক
'গোপালগঞ্জ-৩ আসনে প্রার্থী দিয়ে লাভ কি, অযথাই'

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গোপালগঞ্জ-৩ আসনে কোনো প্রার্থী না দেয়ার কথা ভাবছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও ড. কামাল হোসেন।

সূত্র জানায়, মঙ্গলবার (১৩ নভেম্বর) সকালে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বৈঠকে ফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গোপালগঞ্জ-৩ আসনে কোনো প্রার্থী না দেয়ার প্রস্তাব রাখেন। ওই প্রস্তাবে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সমর্থন দেন।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, মির্জা ফখরুল মনে করেন, এর ফলে প্রধানমন্ত্রীকে নিরপেক্ষ রাখা একটি উদ্যোগ হিসেবে দেখানো যাবে। বৈঠকে বলা হয়, ঐ আসনে কোনো প্রার্থী না দিয়ে আমরা প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করতে পারি যে আপনি নির্বাচনে নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করুন।

মির্জা ফখরুল একে সমর্থন করে বলেন, এর ফলে প্রধানমন্ত্রীর প্রচারণা সীমিত রাখার সুযোগ সৃষ্টি হবে। দেশে বিদেশে আমরা গণতান্ত্রিক শিষ্টাচারের একটি অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে চাই।

তবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহল বলছেন, প্রধানমন্ত্রীকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত করার প্রস্তাব একটি কৌশল। এর ফলে, ঐক্যফ্রন্টের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হবে। দ্বিতীয়ত, প্রধানমন্ত্রীকে নিষ্ক্রিয় করা সহজ হবে। ঐক্যফ্রন্টের একাধিক নেতা বলছেন, 'গোপালগঞ্জ-৩ আসনে প্রার্থী দিয়ে লাভ কি, অযথাই প্রধানমন্ত্রীর ওই আসনে বিএনপি বা ঐক্যফ্রন্টের জয়ের কোন সম্ভাবনাই নেই। তাই গণতান্ত্রিক সৌহার্দ্যের এক নজির স্থাপন করতে এই প্রস্তাব।'

উপরে