আপডেট : ১৬ অক্টোবর, ২০১৮ ২০:২১

'মান্না আর মোবাইল ব্যবহার করতে পারবেন না'

অনলাইন ডেস্ক
'মান্না আর মোবাইল ব্যবহার করতে পারবেন না'

আ স ম আব্দুর রবের উত্তরার বাসভবনে আজ বেলা ১২ টায় বৈঠকে বসেছিলেন নবগঠিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সদস্য সচিব আ ব ম মোস্তফা আমীন, জেএসডির সহ-সভাপতি তানিয়া রব উপস্থিত রয়েছেন।

ওই বৈঠকের শুরুতেই সম্প্রতি মাহী বি. চৌধুরীর সঙ্গে মাহমুদুর রহমান মান্নার কথোপকথন ফাঁসের বিষয়টি সামনে আসে। এ সময় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঠাট্টাচ্ছলেই বলেন, মান্নার জন্য মোবাইল নিষিদ্ধ।

মাহমুদুর রহমান মান্নাকে উদ্দেশ্য করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আপনি আর কত ফোন কেলেঙ্কারি ঘটাবেন। আপনি যখনই ফোন ব্যবহার করেন তখনই একটি কেলেঙ্কারি ঘটে। এর আগে খোকার (সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা) সঙ্গে ফোন কেলেঙ্কারি করে আপনাকে শাস্তি পেতে হলো। এখন আপনার মাহীর সঙ্গে ফোন কেলেঙ্কারি। আপনি যে এত ফোনে কথা বলেন, এখন থেকে আপনার মোবাইলে কথা বলতে পারবেন না।

ঠাট্টাচ্ছলেই মির্জা ফখরুল বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সিদ্ধান্ত মান্না আর মোবাইলে কথা বলতে পারবেন না।

এই সময় বিএনপি পন্থী বুদ্ধিজীবী ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, শোনো মান্না, যখন কারও সঙ্গে ৩০ সেকেন্ডের বেশি কথা বলতে হবে, তখন বুঝবে তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে হবে। মোবাইলে কারও সঙ্গে এত কথা বলা যায় না। ঘটনাটি নিয়ে ঐক্যফ্রন্টের বৈঠকে বেশ হাসাহাসি হয়।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে