আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২১:০৪

ড. কামালকে ছেড়ে আ.লীগে ফিরছেন মোস্তফা মন্টু?

অনলাইন ডেস্ক
ড. কামালকে ছেড়ে আ.লীগে ফিরছেন মোস্তফা মন্টু?

জাতীয় ঐক্যের পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ বেশ কিছু পদক্ষেপ নিচ্ছে। এসব পদক্ষেপের মধ্যে প্রথমেই রয়েছে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতা ড. কামাল হোসেনের দল গণফোরাম থেকে একটি বড় অংশকে বের করে আনা।

সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা এবং বর্তমানে গণফোরামের অন্যতম নেতা মোস্তফা মহসীন মন্টু আওয়ামী লীগে যোগ দিতে পারেন। আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা মোস্তফা মহসীন মন্টুর সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। তাঁকে আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়ার প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছে। মন্টু এই প্রস্তাবের ব্যাপারে ইতিবাচক মনোভাব দেখিয়েছেন বলে জানা গেছে।

মোস্তফা মহসীন মন্টু দীর্ঘদিন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের অন্যতম স্তম্ভ বলে পরিচিত ছিলেন। তাঁর হাতে ৭৫ এর পর ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ গড়ে উঠেছিল।

একাধিক সূত্র জানাচ্ছে, ঢাকা (দক্ষিণ) মহানগর আওয়ামী লীগের নেতা শাহ আলম মুরাদ ছিলেন মোস্তফা মন্টুর শিষ্য। এখন তিনিই নতুন করে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। তাঁকে ঢাকার একটি আসনে প্রার্থী করারও প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে বলে ঐ সূত্র নিশ্চিত করেছে।

আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল সূত্রগুলো বলছে, শুধু মোস্তফা মোহসীন মন্টু নন, গণফোরামে আওয়ামী লীগ থেকে যোগ দেওয়া অনেককেই আবার দলে ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগ জাতীয় ঐক্যের পাল্টা হিসেবে ১৪ দলের পরিধি বাড়ানোরও উদ্যোগ নিয়েছে। অবশ্য এই উদ্যোগ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আগেও নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সেসময় শরিকরা ১৪ দলের পরিধি বৃদ্ধির বিরোধিতা করেছিল। কিন্তু এখন পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে ১৪ দলের শরিকরাই এর আকার বড় করতে চাইছেন।

১৪ দলের সূত্রে জানা গেছে, আগামী শনিবার ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে জোটের বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এই বৈঠকে এ ব্যাপারে আলোচনা হতে পারে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী যে দলগুলো ১৪ দলের বাইরে আছে তাদের জোটের ছাতায় আনার চেষ্টা করা হতে পারে।

তৃতীয় পদক্ষেপ হিসেবে আওয়ামী লীগ, বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করার উদ্যোগ নিয়েছে। পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদকে সক্রিয় করার জন্য বৈঠক করা হয়েছে। এছাড়াও নির্বাচনকে সামনে রেখে নাগরিক কমিটি গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

আওয়ামী লীগের একাধিক সূত্র জানিয়েছে, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ, প্রকৌশলী, কৃষিবিদদের নিয়ে অক্টোবরেই আওয়ামী লীগের পৃষ্ঠপোষকতায় একটি মহাসমাবেশ করার কাজ চলছে। এ ধরনের সমাবেশের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়া হতে পারে।

এছাড়াও জাতীয় ঐক্যকে নির্বাচনমুখী করার লক্ষ্যে, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায় থাকা একাধিক নেতার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করা হচ্ছে। জাতীয় ঐক্য যেন নির্বাচন বিমুখ হয়ে আন্দোলনের পথে না যায়, সে ব্যাপারে আওয়ামী লীগ সতর্ক।

আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ বলছেন, জাতীয় ঐক্যের ব্যাপারে আমাদের সতর্ক নজর রয়েছে। জাতীয় ঐক্য যেন নির্বাচনমুখী হয় সেটাই আমাদের প্রত্যাশা।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে