আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৯:৪৬

রাতে বি.চৌধুরীর বাসায় যাচ্ছেন ড.কামাল

অনলাইন ডেস্ক
রাতে বি.চৌধুরীর বাসায় যাচ্ছেন ড.কামাল

সাবেক রাষ্ট্রপতি বিকল্পধারা সভাপতি ডা. বদরুদ্দোজা চৌধুরীকে (বি চৌধুরী) নিয়ে টানাপড়েন চলছে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায়। সেই টানাপড়েন মেটাতেই বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতে বি চৌধুরীর বাসায় যাচ্ছেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামালসহ জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতারা।

যুব গণফোরামের আহ্বায়ক কাজী হাবীব এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণফোরাম সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসীন মন্টুসহ জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার শীর্ষ নেতারা ডা. বি. চৌধুরীর বাসায় বৈঠক করবেন আজ বুধবার রাতে। জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সঙ্গে বি. চৌধুরীর মধ্যে যে টানাপড়েন চলছে, তা দূর করতেই এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

কাজী হাবীব জানান, এর আগে আওয়ামী লীগের সঙ্গে নির্বাচনী আসন নিয়ে দর কষাকষি করেছিলেন বিকল্পধারার যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি চৌধুরী। আওয়ামী লীগ শুধু বি চৌধুরী, মাহী বি চৌধুরী ও বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব.) মান্নানের জন্য তিনটি আসন দিতে চেয়েছিল। মাহী ফের বিএনপির কাছে দেড়শ আসন চেয়েছেন। এ নিয়ে ক্ষুব্ধ হয়েছেন ড. কামাল হোসেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতি ও সংসদীয় ক্ষমতায় ভারসাম্য আনতে বি চৌধুরী যে প্রস্তাব দিয়েছেন, তা নিয়েই চিড় ধরেছে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায়। এছাড়া, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার এক বৈঠকে মাহী বি চৌধুরী বলেন, কোটা সংস্কার ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত তরুণরা বিকল্পধারার সঙ্গে আছে। তাই গণফোরামের চেয়ে বিকল্পধারার শক্তি বেশি। মাহীর এ বক্তব্যে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতারা আরও ক্ষুব্ধ হন।

এর আগে, জাতীয় প্রেস ক্লাবে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা অনুষ্ঠানেও উপস্থিত হননি বি চৌধুরী। সব মিলিয়ে বি চৌধুরীর সঙ্গে যে দূরত্ব তৈরি হয়েছে, তা মেটাতেই আজ বুধবার রাতে বৈঠকে বসছেন জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতারা।

এদিকে, সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বৈঠকে বসতে চাইলে ড. কামালসহ জাতীয় ঐক্যের নেতারা সেই বৈঠকে বসবেন। তবে তারা নিজেদের পাঁচ দফা দাবি থেকে সরবেন না। এসব দাবি মেনে নেওয়া হলে তবেই তারা নির্বাচনে যাবেন। আর নির্বাচনে দুই শতাধিক আসনে প্রার্থী দিতে পারে গণফোরাম। তবে সে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হবে ২২ সেপ্টেম্বরের সমাবেশের পর। আর বিকল্পধারা তাদের সঙ্গে এলে বা না এলে তাতে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার কোনো লাভ-ক্ষতি নেই বলেও মনে করছেন এই রাজনৈতিক জোটের নেতারা।

সংশ্লিষ্টরা আরও জানিয়েছেন, এরই মধ্যে নাগরিক সভা নামে একটি সংগঠন জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। প্রবীণ অর্থনীতিবিদ রেহমান সোবহান, সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার, শিক্ষাবিদ জামিলুর রেজা চৌধুরী, অর্থনীতিবিদ দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য, সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার মইনুল ইসলাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক আতাউর রহমান, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা আকবর আলী খানের মতো দেশের সিনিয়র নাগরিকরা রয়েছেন এই নাগরিক সভায়।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে