আপডেট : ১৭ মার্চ, ২০১৮ ২০:৫৩

‘মওদুদের মতো বেইমানরা থাকলে জেলেই থাকবেন খালেদা’

অনলাইন ডেস্ক
‘মওদুদের মতো বেইমানরা থাকলে জেলেই থাকবেন খালেদা’

সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার আপিল শুনানিতে মওদুদ আহমদের মতো ‘বেইমানদেরকে’ বাদ দিয়ে ‘ভালো’ আইনজীবী নিয়োগ করতে পরামর্শ দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। নইলে বিএনপি নেত্রীর মুক্ত হয়ে আসা আর হবে না বলেও সতর্ক করেছেন তিনি।

শনিবার (১৭ মার্চ) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে বঙ্গবন্ধুর ৯৮তম জন্মবার্ষিকী উদযাপনে এক আলোচনায় বিএনপিকে এই পরামর্শ দেন আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ এই নেতা।

তবে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা কী বেইমানী করছেন, সে বিষয়ে কিছু বলেননি স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বেইমানদের বাদ দিয়ে টাকা পয়সা খরচ করে ভালো আইনজীবী রাখেন, তাহলে জেল থেকে তাড়াতাড়ি ছাড়া পাবেন। অন্যথায় ছাড়া পাবার কোন সম্ভাবনা নেই।’

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক আখতারুজ্জামান। এই মামলায় খালেদা জিয়ার পক্ষে লড়েছিলেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ আইনজীবী নেতারা। রায়ের বিরুদ্ধে আপিলেও যারা লড়ছেন, তারা বিচারিক আদালতেও কথা বলেছেন।

তবে বিচারিক আদালতের মতো উচ্চ আদালতেও এখন পর্যন্ত খালেদা জিয়ার পক্ষে স্বস্তিদায়ক আদেশ আসেনি। গত ২২ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার আপিল আবেদন গ্রহণের তিন দিন পর জামিন আবেদনের শুনানি হয়। আর ১২ মার্চ জামিন দেয়া হয় চার মাসের। তবে রাষ্ট্রপক্ষ এবং দুর্নীতি দমন কমিশনের আবেদনে সে জামিন আদেশ এখন স্থগিত। জামিন বাতিলেও আপিলের আবেদন করেছে দুদক।

বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবী জাফরুল্লাহ চৌধুরী সম্প্রতি একটি টেলিভিশন টক শোতে বলেছেন, খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের ভুল ছিল মামলা পরিচালনায়। আর ২৫ ফেব্রুয়ারি জামিন আবেদনের শুনানি শেষে আদেশ না আসার পর বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের নিজেদের মধ্যে বিরোধের খবরও এসেছে গণমাধ্যমে।

খালেদা জিয়ার জামিন শুনানির দুই দিন পর আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ‘নিজের আইনজীবীদের ভুলের কারণে খালেদা জিয়াকে কারাগারে যেতে হয়েছে। খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা আইনি প্রক্রিয়ায় না লড়ে বরং সরকারকে দোষারোপ করে যাচ্ছেন।’

যদিও ২৮ ফেব্রুয়ারি পাল্টা সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়ার আইনজীবী জয়নুল আবদিন বলেছেন, আইনমন্ত্রী বিভক্তি ছড়াতে চাইছেন, তাদের কোনো ব্যর্থতা নেই।

মোহাম্মদ নাসিম খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘মওদুদদের মতো বেইমান আইনজীবীদের জন্য আপনি পার্লামেন্ট হারিয়েছেন, বাড়ি হারিয়েছেন, হারিয়েছের রাস্তাও। এই আইনজীবী পরিববর্তন না করলে জেল থেকেও বের হতে পারবেন না।’

নির্ধারিত সময়ে বর্তমান সরকারের অধীনেই সংবিধান মেনে নির্বাচন হবে জানিয়ে নাসিম বলেন, ‘আর এই নির্বাচন কোন দলের জন্য অপেক্ষা করবে না।’

‘কোন দল নির্বাচনে আসবে আর কোন দল আসবে না সেটা সরকারের এখতিয়ার নয়, সেটি দেখবে নির্বাচন কমিশন।’

‘অন্তর্বর্তীকালীন সরকার ছাড়া অন্য কোন ভাবে নির্বাচন হওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই।’

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে  ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলম হানিফ বিএনপি নেতাদেরকে বলেন, ‘আপনাদের লজ্জিত হওয়া দরকার কারণ আপনাদের দলের প্রধান এতিমের টাকা মেরে খেয়ে জেলে বসে তার শাস্তি ভোগ করছেন। আরো লজ্জার বিষয় হল আপনারা দলের চেয়ারপারসনের অনুপস্থিতে এক সন্ত্রাসীক (তারেক জিয়াকে) ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসনের দায়িত্ব দিয়েছেন। যিনি খুন কারাবি, দুর্নীতি ছাড়া আর কিছু চিন্তা করতে পারেন না।’

বঙ্গবন্ধু হল শাখা সভাপতি বরিকুল ইসলাম বাধনের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্যে রাখেন ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি আবিদ আল হাসান ও সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্স। উপস্থিত ছিলেন ঢাবির বিভিন্ন হল শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে