আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ২০:১১

‘এরা শুধু গায়ে কোর্ট লাগিয়ে ঘোরে, আইনের ক,খ ও জানে না’

অনলাইন ডেস্ক
‘এরা শুধু গায়ে কোর্ট লাগিয়ে ঘোরে, আইনের ক,খ ও জানে না’

লন্ডনে পলাতক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়া তাঁর দলের আইনজীবীদের উপর আস্থা হারিয়েছেন। লন্ডন থেকে টেলিফোনে স্থায়ী কমিটির দুজন সদস্যকে তারেক বলেছেন, ‘আইদ্যার দে আর ইললিটারেট অর ভেরি ক্লেভার (হয় তাঁরা অশিক্ষিত অথবা অতিচালাক)।

আজ রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে জিয়া অরফানেজ দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত বেগম জিয়ার জামিনের আবেদনের শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। ৮ ফেব্রুয়ারি এই মামলায় বেগম জিয়া পাঁচ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়ে জেলে যান।

রায়ের পর বেগম জিয়ার আইনজীবীদের ভূমিকা এবং তৎপরতা নিয়ে বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যেই প্রশ্ন উঠেছিল। আইনজীবীরা দলীয় ফোরামে তীব্র সমালোচনার মধ্যে পড়েন। আর রোববার আদালতের ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করলেন খোদ তারেক জিয়া।

তারেক জিয়া দুপুর থেকেই বিভিন্ন নেতাকে ফোন করে জামিনের শুনানির বিষয়ে জানতে চাইছিলেন। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান একাধিক আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলেন। আদালত শুরুর আগ মুহূর্তে তারেক ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকারের সঙ্গে কথা বলেন। সবাই তাঁকে বলেছেন, জামিন অবশ্যই হবে। জামিন না হওয়ার কোনো কারণ নেই। কিন্তু আজ আদালতে শুনানি শেষে দেখা গেল, মামলার নথিই হাইকোর্টে পৌঁছেনি।

সাধারণ ক্ষতিগ্রস্ত পক্ষ তদবির করে দ্রুত এই নথি উচ্চতর আদালতে নিয়ে আসেন বলে বিভিন্ন আইনজীবী জানিয়েছেন। তারেক জিয়াও একজন স্থায়ী কমিটির সদস্যকে বলেছেন, ‘নথির তো পাও নেই, পাখাও নেই। নথিটা উচ্চ আদালতে দ্রুত নিয়ে আসার দায়িত্ব নিম্ন আদালতের আইনজীবীদের। তাঁরা কি করেছে?’

জানা গেছে কোনো আইনজীবী উচ্চ আদালতে নথিটি যেন তাড়াতাড়ি পৌঁছে এজন্য চেষ্টা তদবির করেননি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির একজন আইনজীবী জানালেন, ‘সাধারণত নথি নিম্ন আদালত থেকে আনতে নিচের দিকে একটু খরচাপাতি করতে হয়। কিন্ত সবাই তো শুধু ক্যামেরার সামনে পোজ দেয়। পকেট থেকে কয়েকটা টাকা খরচ করতে কেউ রাজি নয়।’

অন্য একজন বিএনপি নেতা বললেন, ‘আমাদের দলে তো সব বিখ্যাত ব্যারিস্টার আইনজীবী রয়েছেন। তাঁরা কেউ একবারও খেয়াল করলেন না যে, নিম্ন আদালত থেকে নথি এসেছে কিনা। জামিনের শুনানির আগে এই বিষয়টা তো খেয়াল করা উচিৎ ছিল।’

বিরক্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য মন্তব্য করেন, ‘এরা তো শুধু গায়ে কোর্ট লাগিয়ে ঘোরে আর নেতা হবার ফন্দি ফিকির করে। আইনের ক,খ তো এরা জানে না।’

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, তারেক জিয়া সন্দেহ করছেন, দলের আইনজীবীরা যেভাবে এলোপাতাড়ি কাজ করছেন, তাতে বেগম জিয়ার জামিন তো দূরের কথা, এই মামলায় উচ্চ আদালতে দণ্ডও হয়তো নিশ্চিত হয়ে যাবে।

স্থায়ী কমিটিতে তারেক জিয়ার ঘনিষ্ট ওই দুই নেতাই আশ্বস্ত করেছেন যে এখন থেকে স্থায়ী কমিটির নেতারাই মামলার তদারকি করবেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে