আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৪:২৩

দাঁড়িপাল্লার বদলে ‘চাঁদ-তারা’ প্রতীকে নিবন্ধন চায় জামায়াত

অনলাইন ডেস্ক
দাঁড়িপাল্লার বদলে ‘চাঁদ-তারা’ প্রতীকে নিবন্ধন চায় জামায়াত

নতুন করে নিবন্ধনের আবেদন করবে জামায়াতে ইসলামি। নির্বাচন কমিশনের কাছে, আগামী মাসেই সংশোধিত গঠনতন্ত্রের আলোকে নিবন্ধনের কাগজপত্র জমা দেওয়া হবে বলে জানা গেছে। গত ২০ ফেব্রুয়ারি জামায়াতের মজিলসে শুরা’র বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জামায়াতের ঘনিষ্ঠ সূত্রগুলো এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, ওই বৈঠকে জামায়াত ২০ দলীয় জোটে থাকলেও, নির্বাচন প্রশ্নে পৃথক অবস্থান গ্রহণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

সূত্রমতে, সব সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে জামায়াত একক প্রার্থী দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। একই সঙ্গে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামায়াত অন্তত ১০০টি আসনে একক প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করেছে। 

জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতা আবদুল হালিম বলেছেন, ‘২০ দলীয় জোট থেকে বেরিয়ে যাবার কোনো চিন্তা আমাদের নেই। তবে, সিটি নির্বাচন একক ভাবে করার সিদ্ধান্ত আমরা নিয়েছি।’ জামায়াতের ওই নেতা বলেন, ‘২০ দলীয় জোটের বৈঠকে সমঝোতা হলে, সম্মানজনক ঐক্যমত হলে একক প্রার্থিতার বিষয়টি আমরা বিবেচনা করতে পারি।’

উল্লেখ্য, যুদ্ধাপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে আদালতের নির্দেশে জামায়াতের নিবন্ধন নির্বাচন কমিশন বাতিল করে দেয়। বাংলাদেশ সুপ্রিম কোট অপর এক আদেশে, জামায়াতের দাঁড়িপাল্লা প্রতীকও নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। হাইকোর্ট, দাঁড়িপাল্লা ন্যায় বিচারের প্রতীক হওয়ায়, কোনো রাজনৈতিক দলকে ওই প্রতীক বরাদ্দ না দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল। জামায়াতের একটি সূত্র বলছে, ২০ ফেব্রুয়ারি জামায়াত দাঁড়িপাল্লা প্রতীকের বদলে ‘চাঁদ-তারা’ প্রতীক চাইবে।

বিএনপির সঙ্গে জামাতের দূরত্বের কারণ জানতে চাইলে, দলটির এক নেতা বলেন, ‘রাজনীতিতে কোনো চিরস্থায়ী শত্রু-মিত্র নেই।’ 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে