আপডেট : ২০ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৯:৪৭

কর্মীদের তোপের মুখে অফিস ছাড়া আ.লীগ নেতা গোলাপ

অনলাইন ডেস্ক
কর্মীদের তোপের মুখে অফিস ছাড়া আ.লীগ নেতা গোলাপ

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরিত দলের কেন্দ্রীয় উপ কমিটি এবং সহ-সম্পাদকদের যে তালিকা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশ পেয়েছে তা বাতিলের ঘোষণা করেছেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তারপরও পদ বঞ্চিতদের ক্ষোভ থামছে না। শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকেই আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিক্ষোভ করেন সাবেক ছাত্র নেতারা।

এদিকে, তোপের মুখে পড়তে পারেন বলে গত কয়েকদিন ধরেই ধানমন্ডি পার্টি অফিসে আসছেন না দপ্তর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ।

শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় ধানমন্ডির পার্টি অফিসে দলের সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে দেখা করেন শতাধিক সাবেক ছাত্র নেতা। তাদের উত্তেজনা প্রশমিত করেন ওবায়দুল কাদের এবং আগামী তিন মাসের মধ্যে নতুন করে উপ-কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন।

উল্লেখ্য, গত ৩ দিন আগে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরিত কয়েকটি উপ কমিটি এবং সহ-সম্পাদক পদের নাম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশ পায়। যেখানে বিতর্কিত অনেকেই স্থান পেয়েছিলেন। এর পরই বিষয়টি আওয়ামী লীগের হাই কমান্ডের নজরে আসে এবং বৃহস্পতিবার রাতে গণভবনে দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনা ওবায়দুল কাদেরকে এ কমিটি স্থগিত ও বাতিল করার নির্দেশ দেন।

এর আগে শুক্রবার সকাল থেকেই ধানমন্ডি ৩/ এ’র কার্যালয়ে সাবেক ছাত্রলীগের কমপক্ষে দেড়শ নেতাকর্মী উপস্থিত হয়ে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের কাছে বিষয়টি নিয়ে জানতে চান। এসময় তিনি বলেন, আমি কোনো কমিটিতে স্বাক্ষর করিনি। তাই এ কমিটির কোনো বৈধতা নেই।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন সাবেক ছাত্রলীগের নেতা বলেন, আমরা যারা দীর্ঘদিন ধরে বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার আদর্শে রাজনীতি করে আসছি, তাদের মূল্যায়ন করে না করে বিএনপি, ছাত্রদল এমনকি জামায়াতের ক্যাডারদের ঠাঁই দেয়া হয়েছিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত উপ কমিটিতে। তাই আমরা দলের দায়িত্বশীল নেতা হিসাবে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের কাছে যাই। তিনি আমাদের আশ্বস্ত করেছেন, এ কমিটি কোনো আওয়ামী লীগের উপ কমিটি নয়।

আগামী তিন মাসের মধ্যে নতুন করে উপ-কমিটি দেয়া হবে বলেও জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের। উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার থেকে শনিবার এ রিপোর্ট লেখার সময় পর্যন্ত (সন্ধ্যা ৭ টা ২১ মিনিট) ধানমন্ডি অফিসে আসেননি দপ্তর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে